নোংরা কথা বলতেন ভাই, ঠকিয়েছিল প্রেমিক, আত্মহননের পথে মডেল

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতের পোস্ট। ফেসবুকে লিখে আত্মহননের চেষ্টা উঠতি মডেল অভিনেত্রী দেবলীনা দে’র। ঠিক কী লিখেছিলেন দেবলীনা? সেই চিঠি প্রকাশ করেছে আনন্দবাজার, যা কিনা আত্মহত্যা করতে যাওয়ার আগে ফেসবুকের পাতা থেকে মুছে দিয়েছিলেন উঠতি মডেল-অভিনেত্রী।

কেন আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন তিনি? একটি লেখায় দিয়েছেন তার বিশদ বিবরণ। তিনি লিখেছেন ‘আমার মৃত্যুর জন্য সবাই দায়ী, বিশেষত আমার পরিবার এবং মা। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বোকা এবং অবাস্তববাদী মানুষ…’ ‘আমার ভাই মাদকাসক্ত। গাঁজা, চরস, পাতা, মদ কী না খায়। টাকা দেয় মা। কোনও কাজ করে না। উল্টে বাড়ি ভাঙচুর করে । হাতের কাছে ছুরি, কাঁচি যা পায় তা দিয়ে মারতে আসে।’

নিজের ভয়ানক যন্ত্রণার কথা প্রকাশ করেছেন উঠতি অভিনেত্রী। ভাই যে তার কাজকে বেশ্যাবৃত্তিরই নামান্তর ভাবে এবং তাঁকে অশ্লীল কথা বলে, তা চিঠিতে প্রকাশ করতে তিনি পিছপা হননি।

এরপরই তিনি শুভজিৎ রক্ষিত বলে একজন ভদ্রলোকের কথা জানিয়েছেন এবং লিখেছেন শুভজিৎ তাঁকে নিয়মিত টাকা পাঠান। তাতেই তিনি বেঁচে আছেন। তিনি জানাতে ভোলেন না, এই অর্থ নিতে তিনি বাধ্য হয়েছেন।

এর পরে তিনি উল্লেখ করেন কৌশিক রায় নামে আরও এক ব্যক্তির কথা। মডেলের দাবি, কৌশিক তাঁকে ব্যবহার করে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করেছেন। বিয়ে করে শান্তিতে আছেন। এ ভাবেই তাঁর পরিচিত বিভিন্ন মানুষের নামে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। প্রত্যেকের সম্মিলিত ব্যবহারে তাঁর এই করুণ পরিণতি চিঠির মাধ্যমে বোঝাতে চেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.