রাতে গোপনে ক্ষুর্ধাতদের খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক

চলমান এক সপ্তাহের কঠোর লকডাউনে নেত্রকোণা জেলায় অনাহারীদের বাসায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক কাজি মো: আবদুর রহমান।

যেসকল পরিবার দিন আনে দিন খায় লকডাউনের ফলে তাদের পরিবারে খাদ্যাভাব দেখা দিয়াছে। নেত্রকোণা জেলা প্রশাসক যেকোন উপায়ে অভূক্ত পরিবারের সংবাদ সংগ্রহ করে তাদের পরিবারের কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন।জেলা প্রশাসক কাজী মো: আবদুর রহমান জানান, জেলায় এ পর্যন্ত বিগত চার দিনে প্রায় ৩০০ পরিবারকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিনে

পেরেছেন।জেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী জানান, জেলা প্রশাসক মহোদয়ের এ ধরনের উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।জেলা প্রশাসকের খাবার গ্রহনকারী নাম প্রকাশ করতে অনিচ্ছুক একজন জানান, তিনি লকডাউনের ৩য় দিন রাতে ফোন করে জেলা প্রশাসকের খাবার পেয়েছেন। তিনি আরও জানান এ খাবার পেয়ে অভূক্ত স্ত্রী সন্তানদের ক্ষুধা নিবারণ করতে পেরেছেন। তিনি জেলা প্রশাসক ও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।এবিষয়ে জেলা প্রশাসক ৩টি ঘটনা উল্লেখ করেছেন যথা-

ঘটনা ১:(নাম গোপন রাখা হচ্ছে) সদর উপজেলার অর্ধবয়স্ক মানুষটি পেশায় তিনি একজন সিএন জি চালক। চলমান বিধিনিষেধ প্রতিপালনের জন্য বর্তমানে তার আয় রোজগার বন্ধ। বর্ষার জলে পানিবন্দী অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন। তিনি জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের সাথে যোগাযোগ করলে তৎক্ষণাৎ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দ্বারা তাকে ট্রেস করে গ্রাম পুলিশের মাধ্যমে তার হাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা সাহায্য পৌঁছে দেওয়া হয়।

ঘটনা ২:সাতপাইয়ের একজন মহিলা পেশায় দিনমজুর। চলমান বিধিনিষেধের কারণে কর্মহীন থাকায় সরকারি ত্রাণ সহায়তার ৩৩৩ নম্বরে ফোন করলে জেলা প্রশাসক জনাব কাজি মোঃ আবদুর রহমান উপজেলা নির্বাহী অফিসার (সদর)কে মহিলার কাছে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার (সদর) সাহায্য প্রার্থী মহিলার হাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা তুলে দেন।

ঘটনা ৩:একটি স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। প্রাইভেট টিউশন করে চলতেন। সমস্যার পরে জেলা প্রশাসনকে অবহিত করলে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার হাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মানবিক খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হয়। চলমান বিধিনিষেধ প্রতিপালনের জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এরকম অসংখ্য মানুষকে প্রতিদিন (২৪*৭) মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.