1. ataurrahmanlabib2017@gmail.com : News Live : News Live
  2. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
October 24, 2021, 1:27 pm
শিরোনাম
দুধের শিশুকে কোলে নিয়ে অডিশনে বিচারকদের মন জিতলেন মা, সারেগামাপার মঞ্চে এই প্রথম মাস্ক পরতে বলায় রাগ, ব্যাংক কর্মীকে দিয়ে নগদ ৫.৮ কোটি টাকা গোনালেন কোটিপতি টিভি পর্দায় আলিঙ্গনের দৃশ্য সম্প্রচার নিষিদ্ধ করল পাকিস্তান মৃত্যু হবে দুপুরে, তাই কাফন পরে কবরে বসেছিলেন ১০৯ বছরের বৃদ্ধ! ঢাকাসহ ৬ বিভাগে বৃষ্টির আভাস ইউটিউব দেখে কবিরাজি করতো তিনি, ফোনে নারীদের অশ্লীল ভিডিও ক্ষেত নিড়ানি, কৃষিকাজ-মাছ চাষে ব্যস্ত নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়ক নাঈম অন্তরঙ্গ মুহূর্তে প্রেমিকের জিহ্বা কেটে নিল প্রেমিকা বন্ধুর মেয়ে সারার সঙ্গে প্রেম করছেন অক্ষয়! কবে থেকে বাড়বে ক্লাসের সংখ্যা, বললেন শিক্ষামন্ত্রী

ক্যাটরিনার রূপচর্চার গোপন ৭ রহস্য

রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম Monday, July 5, 2021
  • 58 Time View

বলিডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ। বয়স ৩৭ এর কোঠায়। তার সৌন্দর্য আজও যেন ১৭তেই সীমাবদ্ধ! মেদহীন শরীর ও ফর্সা-কোমল ত্বকের অধিকারী এই নায়িকার সৌন্দর্যে মুগ্ধ হন ভক্তরা। তাই তো তার ডায়েট প্ল্যান এবং রূপচর্চা সম্পর্কে জানতে কৌতূহল পুরো বিশ্ব।আপনারা হয়তো প্রায়ই দেখেন ক্যাটরিনা ভারী মেকআপ কখনোই করেন না। এমনকি তিনি বেশি

প্রসাধনী ব্যবহার করতেও পছন্দ করেন না। প্রাকৃতিকভাবে সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন এই বলিউড কুইন। জন্মগতভাবেই ক্যাটরিনা সুন্দর ত্বক ও চুলের অধিকারিনী।তবুও সৌন্দর্য ধরে রাখতে বেশ কিছু পন্থা অবলম্বন করেন এই নায়িকা। বিশেষ করে রূপচর্চা ও আকর্ষণীয় ফিগার ধরে রাখতে বদ্ধ পরিকর ক্যাটরিনা মেনে চলেন কিছু নিয়ম। জেনে নিন তার সৌন্দর্যর গোপন ৫ রহস্য-ফেসিয়াল ইয়োগার মাধ্যমে আজীবন যৌবনাদীপ্ত ত্বক ধরে রাখা সম্ভব। বলিউডের প্রায় সব নায়িকারাই তাদের রূপচর্চায় কিছুটা সময় ফেসিয়াল ইয়োগার জন্য বরাদ্দ রাখেন। মুখের বিভিন্ন

ধরনের ভঙ্গির মাধ্যমে এই ইয়োগা করা হয়।এর ফলে ত্বকে রক্ত সঞ্চালনের পরিমাণ বাড়ে। ফেসিয়াল ইয়োগা করলে ত্বক ভেতর থেকে সুস্থ থাকে। ফলে মুখের অতিরিক্ত মেদ, বলিরেখা, ব্রণসহ বিভিন্ন সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে। বলিউড ডিভা ক্যাটরিনা কাইফও নিয়মিত ফেসিয়াল ইয়োগা করে থাকেন।ময়েশ্চারাইজারের বিকল্প নেই। এই একটি প্রসাধনীই আপনার ত্বককে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সুস্থ রাখবে। ত্বককে শুষ্কতা থেকে রক্ষা করে উপযুক্ত ময়েশ্চারাইজার।যখনই ক্যাটরিনা তার মুখ পরিষ্কার করেন, তার পরপরই মুখে ও ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করেন। মেকআপ করার আগে এমনকি রাতে ঘুমানোর আগেও ময়েশ্চারাইজার অবশ্যই ব্যবহার করেন এই নায়িকা।যতই ব্যস্ত সময় পার করুন না কেন, ক্যাটরিনা দিনে অন্তত ৭-৮ গ্লাস পানি

পান করেন। পাশাপাশি গ্রিন টি’তে চুমুক দিতেও ভুলেন না।পরিমাণমতো পানি গ্রহণ করলে শরীর এবং ত্বক থেকে বিষাক্ত পদার্থ সহজেই দূর হয়। এ ছাড়াও গ্রিন টি পানের অভ্যাস শরীর এবং ত্বক দু’টোর জন্যই ভালো। কারণ এতে থাকে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসহ নানা উপাদান।অভিনেত্রী ম্যাক্রোবায়োটিক ডায়েট অনুসরণ করেন। এই ডায়েট প্ল্যানটি বৌদ্ধধর্ম থেকে প্রাপ্ত। ম্যাক্রোবায়োটিক ডায়েটের প্রধান খাবারগুলো পুরো শস্য, তাজা শাক-সবজি, এবং মটরশুটি।আপনি প্রতি সপ্তাহে ২-৩ বার মৌসুমী ফল, বাদাম, বীজ এবং সাদা মাছ খেতে পারেন। ক্যাটরিনা সেদ্ধ শাক-সবজি, তাজা ফল এবং আঁশযুক্ত খাবার খেয়ে থাকেন। তিনি সবসময় শর্করা থেকে দূরে থাকেন।পাশাপাশি ত্বকের সুস্থতায় ক্যাটরিনা অ্যাকাই বেরি খেয়ে থাকেন নিয়মিত। এতে থাকে

ভিটামিন এ, সি, বি এবং ই। যা ত্বককে বার্ধক্য থেকে রক্ষা করে।ক্যাটরিনা নিয়মিত বরফের কিউব মুখে ম্যাসাজ করে থাকেন। একে বলা হয় ক্রিওথেরাপি এবং ক্রিও ফেসিয়াল। প্রতিদিন সকালে, তিনি একটি অন্তত ১ মিনিট আইস ফেসিয়াল করেন।যা চোখের চারপাশের ফোলা ভাব দূর করে। এই ফেসিয়ালের মাধ্যমে ত্বক থাকে টানটান। ত্বকের তৈলাক্তভাব দূর হয় এবং মুখের মেদ কমাতেও সহায়তা করে এই ক্রিও ফেসিয়াল।ক্যাটরিনা খুব বেশি মেকআপ করতে পছন্দ করেন না। ত্বককে সর্বদা সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি, ময়লা এবং ধূলিকণা থেকে রক্ষা করার জন্য সঙ্গে একটি লিপ বাম এবং সানস্ক্রিন রাখেন ক্যাট। ঘুমানোর আগে অবশ্যই মেকআপ ভালো করে পরিষ্কার করেন তিনি।তার চুলে প্রচুর ব্লো-ড্রায়িং, স্ট্রেইটিং বা কার্লিংসহ অত্যাধিক চুল আঁচড়াতে হয়। তাই সবসময় চুল গভীরভাবে কন্ডিশনিং করেন তিনি। এ ছাড়াও চুলে বিভিন্ন স্টাইল করার আগে তিনি সঠিক হেয়ার হিট প্রটেক্টর ও সিরাম ব্যবহার করেন।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এছাড়া আরো সংবাদ
2020সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | নিউজলাইভ 24.কম সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন
উন্নয়নেঃ সাইট পুল