‘পুলিশের মোটরসাইকেল’ জব্দ করল পুলিশ

হেলমেট ও কাগজপত্র ছাড়া রাস্তায় বের হলে পুলিশের এক সদস্যের মোটরসাইকেল জব্দ করে পুলিশ। ছবি : আমাদের সময়

কঠোর বিধিনিষেধের চতুর্থ দিনেও কঠোর অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। প্রতিটি চেকপোস্টে যাচাই করা হচ্ছে বাইরে বের হওয়ার কারণ। সঙ্গত কারণ হলে ছাড়, না হলে মামলা কিংবা জব্দ। রেহাই পাচ্ছেন না সাংবাদিক কিংবা পুলিশ পরিচয় দেওয়া ব্যক্তিও।আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বরিশাল নগরীর আমতলার মোড়ে চেকপোস্টে পুলিশ পরিচয় দিয়েও এক ব্যক্তি রক্ষা পাননি। তার মোটরসাইকেলটি জব্দ করেছে পুলিশ।চেকপোস্ট পরিচালনাকারী পুলিশ সদস্যরা জানান, বেলা সাড়ে ১১টায় আমতলার মোড়ে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ট্রাফিক)

মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদারের উপস্থিতিতে নিয়মিত চেকপোস্টে একটি মোটরসাইকেলে হেলমেটবিহীন দুই ব্যক্তি হাজির হন। কঠোর বিধিনিষেধে তাদের ঘর থেকে বাইরে বের হওয়ার কারণ জানতে চাইলে আরোহীদের একজন নিজেকে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার সদস্য দাবি করেন এবং নিজের নাম কামরুজ্জামান ও পদবি এএসআই বলে জানান।তবে ওই সময়ে তার ডিউটি ছিল না এবং পরিচয়পত্র দেখাতে পারেননি। এমনকি তার গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চাইলে তাও দেখাতে পারেননি। পরে তার মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়।মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-

কমিশনার (ট্রাফিক) মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার জানান, হেলমেটবিহীনভাবে দুজন এক মোটরসাইকেলে আরোহণ করার কারণ জানতে চাইলে তাদের মধ্যে একজন পুলিশ সদস্য হিসেবে নিজের পরিচয় দেন। এ সময় তিনি নিজের পরিচয়পত্র দেখাতে পারেনি। এ ছাড়া মোটরসাইকেলটির কাগজপত্র থাকলেও তা সঙ্গে না থাকায় দেখাতে পারেননি। তাই তার মোটরসাইকেলটি জব্দ করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.