Breaking News

যে আমলকারী কখনো জাহান্নামে যাবে না

ইসলাম প্রধান দুই সাহাবি হজরত আবু সাঈদ খুদরি ও আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু এমন একটি আমলের হাদিস বর্ণনা করেছেন। যার আমলকারী কখনো জাহান্নামে যাবে না। জাহান্নামে আগুন তাকে স্পর্শ করবে না। কী সেই আমল? আর এই আমল কখন করতে হয়?

আমলটি হলো-
যে আমলে জাহান্নামের আগুন কখনো কাউকে স্পর্শ করবে না, তাহলো-
> لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ وَاللهُ أكْبَرُ
> لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ وَحدَهُ لاَ شَرِيكَ لَهُ
> لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ لَهُ المُلْكُ وَلَهُ الحَمْدُ
> لاَ إله إِلاَّ اللهُ وَلاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ بالله
এ আমল প্রসঙ্গে হাদিসের পুরো বর্ণনাটি এমন-
হজরত আবু সাঈদ খুদরি ও আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহুমা বর্ণনা করেন তারা উভয়ে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতি এ হাদিস বর্ণনায় সাক্ষ্য দিচ্ছেন যে, তিনি বলেছেন-

> যে ব্যক্তি বলে- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ وَاللهُ أكْبَرُ : ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবার’ : অর্থাৎ আল্লাহ ছাড়া কোনো সত্য উপাস্য নেই এবং আল্লাহ সবচেয়ে বড়।
তখন তার প্রভু তা সত্যায়ন করে বলেন- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ أنَا وَأَنَا أكْبَرُ, ‘(আমি ছাড়া কোনো (সত্য) উপাস্য নেই এবং আমি সবচেয়ে বড়)।’
> আর যখন সে বলে- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ وَحدَهُ لاَ شَرِيكَ لَهُ : ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহদাহু লা শাররিকা লাহু’ : অর্থাৎ আল্লাহ ছাড়া কোনো সত্য উপাস্য নেই, তিনি একক, তাঁর কোন অংশীদার নেই।

তখন আল্লাহ বলেন- لاَ إِلٰهَ إلاَّ أنَا وَحْدِي لاَ شَريكَ لِي, (আমি ছাড়া কোনো সত্য উপাস্য নেই, আমি একক, আমার কোনো অংশীদার নেই)।’
> আর যখন সে বলে- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ اللهُ لَهُ المُلْكُ وَلَهُ الحَمْدُ : ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল হাম্‌দ’ : অর্থাৎ আল্লাহ ছাড়া কোনো সত্য উপাস্য নেই, সার্বভৌম ক্ষমতা তাঁরই এবং তাঁরই যাবতীয় প্রশংসা।

তখন আল্লাহ বলেন- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ أنَا لِيَ المُلْكُ وَلِيَ الحَمْدُ, ‘(আমি ছাড়া কোনো সত্য উপাস্য নেই, সার্বভৌম ক্ষমতা আমারই এবং আমার জন্যই যাবতীয় প্রশংসা)।’
> আর যখন সে বলে- لاَ إله إِلاَّ اللهُ وَلاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ باللهِ : ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ, ওয়া লা হাওলা ওয়া লা ক্যুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহি’ : অর্থাৎ আল্লাহ ছাড়া কোনো (সত্য) উপাস্য নেই এবং আল্লাহর প্রেরণা দান ছাড়া পাপ থেকে ফিরে থাকার এবং সৎকাজ করার বা নড়া-চড়ার কোনো শক্তি নেই।
তখন আল্লাহ বলেন- لاَ إِلٰهَ إِلاَّ أنَا وَلاَ حَوْلَ وَلاَ قُوَّةَ إِلاَّ بِي, ‘আমি ছাড়া কোনো (সত্য) উপাস্য নেই এবং আমার প্রেরণা দান ছাড়া পাপ থেকে ফিরে থাকার এবং সৎকাজ করার বা নড়া-চড়ার শক্তি কারো নেই।’

(এ আমল সম্পর্কে) রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলতেন- ‘যে ব্যক্তি তার অসুস্থতার সময় এটি পড়বে এবং মারা যাবে; জাহান্নামের আগুন তাকে খাবে না। অর্থাৎ সে জাহান্নামে যাবে না।’ (তিরমিজি, ইবনে মাজাহ, রিয়াদুস সালেহিন)
সুবহানাল্লাহ!
মহান আল্লাহ তাআলা কতই না দয়াবান। শুধু তাকে প্রভু হিসেবে সাক্ষী দেওয়ায় এবং তাঁর প্রশংসা করায় অসুস্থ ব্যক্তিকে তিনি সহজেই জাহান্নামের আগুন থেকে মুক্তি দান করবেন।

মনে রাখতে হবে
যারা সুস্থ অবস্থায় নিয়মিত এ আমল করবেন; ওই ব্যক্তির দ্বারাই সম্ভব মৃত্যুর আগেও এ আমল নিয়মিত করা। সুতরাং অসুস্থ হওয়ার আগে থেকেই হাদিসে ঘোষিত আমলটি নিয়মিত করা। ফলে মৃত্যুর আগ মুহূর্তে অসুস্থ অবস্থায় আল্লাহর অনুগ্রহে কেউ এ আমল ভুলবে না। মহান আল্লাহ তাআলাও তাঁর প্রশংসাকারীকে এ আমলের বিনিময়ে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেবেন।

আল্লাহ তাআলা উম্মতে মুসলিমাহকে হাদিসের ওপর আমল করে তাওহিদের স্বীকৃতি দেওয়ার পাশাপাশি তার প্রশংসা ও তাসবিহ বেশি বেশি করার তাওফিক দান করুন। হাদিসের ওপর যথাযথ আমল করে জাহান্নাম থেকে মুক্ত থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Check Also

বাঘের মতো চেহারা পেতে ১৪ বার সার্জারি

১৯৫৮ সালে মিশিগান শহরের কাছে জন্ম ডেনিস আভনারের। তবে আমেরিকার শহুরে জীবন ছাড়িয়ে হুরোন এবং …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *