হবু বউ পছন্দ না হওয়ায় আত্মগোপন করেন সেই ব্যাংক কর্মকর্তা

গাইবান্ধা: হবু বউ পছন্দ না হওয়ায় আত্মগোপন করেন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার আবু সুফিয়ান। সাতদিন পর তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) দুপুরে গাইবান্ধা পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।তিনি বলেন, বিয়ের জন্য পরিবারের ঠিক করা হবু বউকে পছন্দ না হওয়ায় গত ২৩ জুন আবু সুফিয়ান আত্মগোপন করেন বলে স্বীকার করেছেন। এরপর পুলিশ ৩০ জুন রাতে তাকে ঢাকা থেকে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তাকে তার বাবা মার কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ।তিনি আরো জানান, পরিবারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ তৎপরতা শুরু করে। মোবাইল ট্র্যাকিং করে সুফিয়ানের অবস্থান জানা যায়। পরে ঢাকার আদাবরের একটি

বাড়ি থেকে তাকে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরিবার থেকে বিয়ের জন্য নির্ধারণ করা কনে পছন্দ না হওয়ার কারণে তিনি বিয়ের মার্কেটিংয়ের কথা বলে একটি মাইক্রোবাস ভাড়া করে ঢাকা চলে যান। সেখানে আদাবরে বাড়ি ভাড়া নিয়ে তিনি আত্মগোপনে ছিলেন।
>>>পলাশবাড়ীতে নিখোঁজ ব্যাংক কর্মকর্তার সন্ধান চায় পরিবার

ব্যাংক কর্মকর্তা আবু সুফিয়ান পলাশবাড়ী উপজেলার জোসেনপুর ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের আবুল কাশেম ও সাহেদা বেগম দম্পতির ছেলে।আবু সুফিয়ানের বাবা আবুল কাসেম বাংলানিউজকে জানান, গাইবান্ধা শহরের প্রফেসর কলোনীর এক মেয়ের সঙ্গে সুফিয়ানের বিয়ের দিন ঠিক করা হয় ২৪ জুন। গত ২৩ জুন বিকেল ৫টায় বিয়ের কেনাকাটার জন্য গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় যান সুফিয়ান। এরপর সন্ধ্যা ৭টা থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তার আর কোনো খোঁজও পাওয়া যাচ্ছিল না। তাই বাধ্য হয়ে পলাশবাড়ী থানায় জিডি করি।শনিবার (২৬ জুন) ছেলের সন্ধান চেয়ে পলাশবাড়ী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনেরও আয়োজন করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.