Breaking News

বিক্রি করেন বাদাম, অথচ কলেজ পড়ুয়া তরুণীকে বিয়ে করেন এএসপি পরিচয়ে

আব্দুল আলীম (৩২), করেন বাদাম বিক্রি, অথচ কলেজ পড়ুয়া এক তরুণীকে বিয়ে করেন বগুড়ায় সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) পরিচয়ে।বিষয়টি টের পেয়ে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানায় পুলিশকে। তাকে আটক করেছে পুলিশ। প্রচলিত আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে গোকুল ইউনিয়নের একটি গ্রাম থেকে আব্দুল আলীমকে

আটক করে সদর থানা পুলিশ। তার গ্রামের বাড়ি পঞ্চগড়ের দেবিগঞ্জ উপজেলার ডাকিয়াপারা গ্রামে। তার বাবার নাম ফজলুল হক (মৃত)। এটি তার পঞ্চম বিয়ে, তার দুটি সন্তানও রয়েছে।এসব তথ্য নিশ্চিত করে সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বেদার উদ্দিন জানান, মুঠোফোনের মাধ্যমে আলীমের সঙ্গে ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ‌ওঠে। প্রায় দেড় বছর ধরে নিজেকে

পুলিশের এএসপি পরিচয় দিয়ে প্রেম চালিয়ে যান আলীম। চলতি মাসের ১৮ তারিখ তিনি তার প্রেমিকার বাড়ি যান এবং ৩ লাখ ৫০ হাজার ৫০০ টাকা মোহরানা দেখিয়ে বিয়ে করে সেখানেই সংসার শুরু করেন।পুলিশ জানায়, আলীম তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে জানান তিনি রংপুরের সৈয়দপুর নামে এলাকায় একটি পুলিশ ফাড়িতে কর্মরত আছেন। কিন্তু তার কথাবার্তায় অসংলগ্নতা পেলে সন্দেহ করে শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরবর্তীতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করলে নিজের বাদাম বিক্রির পেশার কথা স্বীকার করেন আলীম। এও জানান, তিনি পুলিশ নন; তবে সোর্স হিসেবে কাজ করেন।

এসআই বেদার উদ্দিন বলেন, স্থানীয়দের সহায়তায় ওই তরুণীর পরিবার বিষয়টি আমাদের জানালে আলীমকে আটক করা হয়। অপরদিকে আলীম নিজেও প্রাণ বাঁচাতে ৯৯৯ নম্বরে কল দিয়ে তাকে উদ্ধারে সহযোগিতা চান।বগুড়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল ও মিডিয়া মুখপাত্র) ফয়সাল মাহমুদ জানান, আটক আলীমের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Check Also

টাকা বিক্রি করেই ঘুরে জীবনের চাকা

গ্রাম-গঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় বটবৃক্ষের ছায়ায় সপ্তাহে দু-এক দিন হাট বসে এটা সকলেই জানেন, কিন্তু টাকার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *