এ,বার সার্টিফিকেট বন্ধক রেখে নিতে পারবেন ১০ লাখ টা’কা পর্যন্ত ঋ,ণ

ব্য’ক্তিগত গ্যারান্টি অথবা শিক্ষা সনদ জা,মানত দিয়ে এক কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন নতুন উদ্যোক্তারা। চার শতাংশ সুদে ২১ থেকে সর্বোচ্চ ৪৫ বছর বয়সের উদ্যোক্তারা এই ঋণ নিতে পারবেন। গত সোমবার এই শর্ত দিয়ে ‘স্টার্ট-আপ’ উদ্যো’গে পৃ,ষ্ঠপোষকতার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকেরগঠিত ৫০০ কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন ত,হবিলের ঋণ নীতিমালা জা’রি করা

হয়। নীতিমালার আওতায় স্টার্ট-আপ বলতে বাজারজাতকরণের লক্ষ্যে নতুন পণ্য, সেবা, প্রক্রিয়া বা প্রযু’ক্তির উদ্ভাবন ও অগ্রগতিকে বোঝাবে। এই প্রযু’ক্তিগত উদ্ভাবিত স,মাধানগুলো ভবিষ্যতে বড় ধ’রনের বিস্তৃতিযোগ্য হতে হবে।তা,ছাড়া, ব্যবসায়িকভাবে টেকসই, বাণিজ্যিকভাবে সফল বিনিয়োগকারীদের ওপর অনুপাতহীন আয় সৃষ্টি করে, যা সফল হলে দেশের অভ্যন্তরে ক’র্মসংস্থান বাড়বে ও সম্পদ বাড়বে, এমন নতুন ও সৃজনশীল ব্যবসায়িক উদ্যো’গে এই ঋণ মিলবে বলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নীতিমালায় বলা হয়। প্রতিটি ব্যাংকই তাদের গ্রাহকদের এই

পুনঃঅর্থায়ন সুবিধা দিতেকে’ন্দ্রীয় ব্যাংকের স’ঙ্গে অংশগ্রহণমূলক চুক্তি ক’রতে পারবে। প্রত্যেক ব্যাংক যে পরিমাণ ঋণ দেবে তা,র ১০ শতাংশ না’রীগ্রাহককে দিতে হবে। একজন গ্রাহক সর্বোচ্চ ১ কোটি টাকা ঋণ নিতে পারবেন।তবে এই ঋণ গ্রাহকদের এক’কালীন দেওয়া হবে না। প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যা,লোচনার ওপর ভিত্তিতে ন্যূনতম ৩ কি,স্তিতে এই ঋণ ছাড় করবে ব্যাংক। ঋণের বিপরীতেবাংলা,দেশ ব্যাংক বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে শূন্য দশমিক ৫০ শতাংশ সুদে ত’হবিল দেবে। বাণিজ্যিক ব্যাংকের স’ঙ্গে সর্বোচ্চ ৩.৫০ শতাংশ সুদ যোগ করে গ্রাহকদের

কাছ থেকে মোট ৪ শতাংশ সুদ আদায় ক’রতে পারবে। সরল সুদে এই ঋণ দেওয়া হবে। এই উ’দ্যোক্তাদের থাকতে হবে সরকারি কিংবা অনুমোদিত বেসরকারি উদ্যোক্তা উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান থেকে উ’দ্যোক্তা উন্নয়ন,

Leave a Reply

Your email address will not be published.