পাঠদানের জন্য ডেডিকেটেড টিভি চ্যানেল চালুর চিন্তা করছে সরকার: শিক্ষামন্ত্রী

সারাবছর অনলাইনে শ্রেণি পাঠদানের জন্য একটি ডেডিকেটেড টিভি চ্যানেল চালু করার চিন্তা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরপর্বে আওয়ামী লীগের এমপি শহীদুজ্জামান সরকারের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী একথা জানান।এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর।

বৃহস্পতিবারের মন্ত্রীদের জন্য প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উত্থাপিত হয়।শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সারাবছরই যাতে শিক্ষার্থীরা ডিজিটাল ক্লাসে অংশ নিতে পারে সেজন্য একটি ডেডিকেটেড চ্যানেল চালু করার বিষয় বিবেচনাধীন।বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার পরে সরাসরি উপস্থিতিতে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সব বিশ্ববিদ্যালয়ে অগ্রাধিকারভিত্তিতে দ্রুততম সময়ে মধ্যে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার আওতায় নিয়ে আসা হবে। এ টিকাদান কর্মসূচি আবাসিক শিক্ষার্থীদের দিয়ে শুরু হবে। আবাসিক

শিক্ষার্থীদের টিকাদানের পর হল খুলে দেওয়া হবে।তিনি আরো বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি ক্লাস শুরু হবে। শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণে প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব সক্ষমতা ও বাস্তবতা অনুযায়ী পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা প্রস্তুত করে তা বাস্তবায়নে কার্যক্রম গ্রহণ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন থেকে একটি গাইডলাইন বিশ্ববিদ্যালয়ে

পাঠানো হবেমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে সব বিশ্ববিদ্যালয়ে অনলাইনে ক্লাস নেয়া হচ্ছে। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইনে পরীক্ষাও নেয়া হচ্ছে।আওয়ামী লীগের সদস্য সহিদুজ্জামানের আরেক প্রশ্নের উত্তরে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তকরণ একটি চলমান প্রক্রিয়া। নীতিমালার আলোকে যোগ্যতার ভিত্তিতে এমপিওবিহীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে পর্যায়ক্রমে এমপিওভুক্ত করা হয়। যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত নয় সেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.