সোনারগাঁওয়ের কারাবন্দি হেফাজত নেতার মৃত্যু

মাওলানা ইকবাল হোসেন

কারাবন্দি অবস্থায় মারা গেলেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সহসভাপতি মাওলানা ইকবাল হোসেন (৫৫)। তিনি খেলাফত মজলিসের উপজেলার সভাপতি ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেলার শাহ রফিকুল ইসলাম বলেন, ইকবাল হোসেন গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এর আগে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে গত ১১ মে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হেফাজতের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হককে সোনারগাঁও উপজেলার রয়্যাল রিসোর্টে নারীসহ ঘেরাওয়ের পর পুলিশের ওপর হামলা, ভাঙচুর ও আওয়ামী লীগের কার্যালয় এবং দুই যুবলীগ নেতার বাড়িঘর ভাঙচুরের দুই মামলার প্রধান আসামি ইকবাল হোসেন। এ ছাড়া তিনি পুলিশের দুটি ও উপজেলা যুবলীগের নেতা রফিকুল ইসলাম নান্নু ও সোহাগ রনির করা ছয়টি মামলার আসামি।

উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মহি উদ্দিন খান ও ইকবাল হোসেনসহ উপজেলার চার শীর্ষ নেতাকে গত ১১ এপ্রিল ঢাকার জুরাইন থেকে গ্রেপ্তার করেন র‌্যাব ১১-এর সদস্যরা।

ইকবাল হোসেন সোনারগাঁও থানায় করা দুই মামলায় গত ১২ এপ্রিল তিন দিনের পুলিশ রিমান্ড শেষে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। নারায়ণগঞ্জ কারাগারে আটক থাকা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ১১ মে তাকে পুলিশ পাহারায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল দুপুর ১২টায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি যান। ইকবাল হোসেন সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মসজিদের খতিব ছিলেন।

ইকবাল হোসেনের ভায়রা ভাই আলী খান গতকাল জানান, হাসপাতালের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে তার লাশ সোনারগাঁও পৌরসভার উদ্ববগঞ্জে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

গত ৩ এপ্রিল মামুনুল হক সোনারগাঁও রয়্যাল রিসোর্টে নারীসহ ঘেরাও হওয়ার পর সোনারগাঁও থানায় সাতটি মামলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.