আজানের সময়ে গান বন্ধ না করায় বিয়ে পড়াতে অস্বীকৃতি কাজির

মাওলানা ক্বারি সুফিয়ান নামে এক কাজি আজানের সময়ে গান বন্ধ না করায় দুটি বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। এই ঘটনা ঘটে ভারতের উত্তরপ্রদেশে।

কাজি মাওলানা ক্বারি সুফিয়ান বলেছেন যে, আমি আজানের সময় হওয়াতে দুই বরের পরিবারকে গান বন্ধ করতে বলেছিলাম। কিন্তু তারা আমার কথা শোনেনি। তাই আমি বিয়ে পড়াতে অস্বীকৃতি জানায়।

কাজি মাওলানা ক্বারি সুফিয়ান আরও বলেন, আমি দেখলাম বরযাত্রার সময় উচ্চস্বর গানের তালে তালে গাড়ির ওপর উঠে নাচছে ওই দুই বর। তারা একই ভেন্যুতে দুই বোনকে বিয়ে করতে যাচ্ছিল। যখন তারা আমার কথা শুনেও থামেনি, তখন আমি তাদের পরিবারকে জানাই যে, আমি বিয়ে পড়াতে পারবো না।

তবে ক্বারি সুফিয়ান বিয়ে পড়াতে অস্বীকৃতি জানানোর পর ওই দুই পরিবার আরেকজন কাজি খুঁজে বের করেন। পরে অল্প সময়ের মধ্যে বিয়ে সম্পন্ন করা হয়।

এ নিয়ে পরদিন পঞ্চায়েতে বৈঠকও বসে। সেখানে এ বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

এ বিষয়ে কিছু বয়স্ক গ্রামবাসী সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, তারা মনে করেন যে বিয়ে পড়াতে না চাওয়ার মধ্য দিয়ে ভুল করেছেন ওই কাজি।

আবার কেউ কেউ বলেছেন, তিনি মোটেও ভুল করেননি। কারণ গানের তালে তালে নাচা ইসলামে নিষিদ্ধ এবং মানুষের সীমার মধ্যে থাকা উচিত।

সাইফুল বারী / একটিভ নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published.