Breaking News

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ২২০৭ শিক্ষক পদ সংরক্ষিত

বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদারাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এন্ট্রি লেভেলের ৫৪ হাজার ৩০৪টি পদে শিক্ষক নিয়োগ সুপারিশের গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

তবে এ নিয়োগে ২ হাজার ২০৭টি পদ সংরক্ষণ করা হয়েছে। এ পদগুলোতে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে কেবল তথ্য ও আবেদন ফি জমা দিয়ে আবেদন করা যাবে। বাকি ৫২ হাজার ৯৭টি পদে সমন্বিত মেধা তালিকাভুক্তরা আবেদন করতে পারবেন।

মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) শিক্ষক নিয়োগ সুপারিশের এ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।
এই পদগুলোতে আবেদন কিভাবে নেয়া হবে সে বিষয়ে গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে ২ হাজার ২০৭টি পদ সংরাক্ষিত রেখে অবশিষ্ট ৫২ হাজার ৯৭টি পদের তালিকা ১ এপ্রিল প্রকাশ করা হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে এনটিআরসিএ আরও বলছে, আপিল বিভাগের রায়ে সংরক্ষিত ২ হাজার ২০৭ পদে শুধুমাত্র মামলার প্রতিকার প্রার্থীদের কোনো ‘চয়েস’ দেয়ার প্রয়োজন নেই।
বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের জন্য ৪ এপ্রিল সকাল ১০টা থেকে অনলাইনে আবেদন শুরু হবে। আগামী ৩০ এপ্রিল রাত ১২টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

জানা গেছে, ৫৪ হাজার ৩০৪ পদের এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মধ্যে ৪৮ হাজার ১৯৯ টি এমপিওভুক্ত শূন্যপদ এবং ননএমপিও পদ আছ ৬ হাজার ১০৫টি। তার মধ্যে ২ হাজার ২০৭টি এমপিও পদে রিটে অংশগ্রহণ করা নিবন্ধনধারীরাও আবেদনের সুযোগ পাবেন। বাকি ৫২ হাজার ৯৭ পদে নিয়োগের জন্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন গ্রহণ করা হবে। অনলাইনে সঠিকভাবে ফরম পূরণ করে সাবমিট করতে হবে। ফরম সাবমিটের পর প্রার্থীদের মোবাইলে এসএমএস পাঠিয়ে টাকা জমা দেয়াসহ পরবর্তী নির্দেশনা জানিয়ে দেয়া হবে। আবেদনের ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ১০০ টাকা।

২০১৮ সালের ১২ জুন এমপিও নীতিমালা জারির আগে সনদ অর্জন করা প্রার্থীরা যাদের বয়স ৩৫ এর বেশি হয়ে গেছে তারাও আবেদনের সুযোগ পাবেন। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ইনডেক্সধারী যেসব শিক্ষক নিবন্ধন সনদধারী কর্মরত আছেন তারাও অনলাইনে নিয়োগের জন্য আবেদন করতে পারবেন। তবে তাদের নিয়োগের আবেদনসমূহ অন্যান্য প্রার্থীদের ন্যায় জাতীয় মেধাতালিকার ভিত্তিতে বাছাইপূর্বক নিষ্পত্তি করা হবে।

আবেদন যাচাই বাছাইয়ের পর প্রতিটি পদের বিপরীতে চূড়ান্তভাবে একজনকে নিয়োগের জন্য সুপারিশ করা হবে। এরপর নির্বাচিতদের মোবাইল ফোনে ম্যাসেজের মাধ্যমে সেই তথ্য জানিয়ে দেয়া হবে। পরে, নির্ধারিত ওয়েবসাইটে প্রার্থীদের সুপারিশপত্র প্রকাশ করা হবে।

উল্লেখ্য, দীর্ঘ দুই বছর অপেক্ষার পর বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৫৪ হাজার ৩০৫ জন শিক্ষক নিয়োগে তৃতীয় ধাপে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এনটিআরসিএর সদস্য এ বি এম শওকত ইকবাল শাহীন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দেশের সব বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে (স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, কারিগরি ও ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা) ৫৪ হাজার ৩০৪টি পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য তৃতীয় ধাপে গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। আগ্রহী প্রার্থীদের আগামী ৪ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে বলা হয়েছে।

Check Also

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যেভাবে হবে মানবণ্টন

এ বছর এসএসসি ও এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে তিনটি বিষয়ে প্রত্যেক পত্রে ৩২ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *