মোদির সঙ্গে থেকে পশ্চিমবঙ্গকে দুর্নীতিমুক্ত করব : শ্রাবন্তী

পশ্চিমবঙ্গের আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে কলকাতার বেহালা পশ্চিম কেন্দ্র থেকে লড়ছেন নায়িকা শ্রাবন্তী। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন। এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি দিয়েছেন বেশ ঝাঁঝালো রাজনৈতিক বক্তব্য।

ইনস্টাগ্রামে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে শ্রাবন্তী লেখেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীজির নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গকে দুর্নীতি, তোলাবাজি মুক্ত করে, বেহালা পশ্চিমে শুধু ক্লাবে ক্লাবে ফূর্তি করার দান খয়রাতি নয়, সামাজিক উন্নয়নের সঙ্গে সোনার বাংলার সংকল্প নিয়ে বেহালা পশ্চিমে সুখে-দুঃখে সব সময় পাশে দাঁড়ানোর শপথ নিয়ে আজ মনোনয়ন পত্র জমা দিলাম।’

তার এই পোস্টে লাইকের সংখ্যা ১৭ হাজারেরও বেশি। লাইক দিয়েছেন বিরোধী পক্ষের রাজনীতিবীদ-অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী, নুসরাত জাহান, কৌশানী মুখার্জিরা। প্রথম দুজন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ। কৌশানী আগামী নির্বাচনে মমতা ব্যানার্জির দলের প্রার্থী।

শাসকদলের পরোক্ষ সমালোচনা, আর সেখানে ‘লাইক’ দিচ্ছেন তাদেরই নেতারা? বিষয়টি যথেষ্ট অবাক করেছে সবাইকে।

এক সময় মমতা ব্যানার্জির মঞ্চে দেখা যেত শ্রাবন্তীকে। তার এই পরিবর্তনে সমর্থন জানিয়েছেন নুসরাতের স্বামী নিখিল জৈনও।

তবে পশ্চিমবঙ্গের এই রাজনৈতিক বিরোধিতা কেবল রাজনীতির মাঠেই সীমাবদ্ধ। পেশাগত দিক দিয়ে কোনো প্রভাব পড়েনি। প্রার্থী হিসেবে রাজনৈতিক দলে নাম লেখানোর পর থেকেই এ কথা জানিয়েছিলেন উভয়দলের তারকা প্রার্থীরা। সেই অবস্থান থেকেই যশ দাশগুপ্তকে অনলাইনে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তারকা-সাংসদ দেব। মিমি ছুটি কাটিয়ে এসেছেন বিজেপি প্রার্থী পার্নো মিত্রের সঙ্গে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.