মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে রিট শুনানি আজও কার্যতালিকায়

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে করা রিটটি শুনানির জন্য আজও হাইকোর্টের কার্যতালিকায় রয়েছে।

বুধবার (২৩ মার্চ) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. মাহমুদ হাসান তালুকদারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানির জন্য রিটটি কার্যতালিকায় (কজলিস্ট) রয়েছে।

জনস্বার্থে রোববার (২১ মার্চ) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এই রিট করা হয়। শিক্ষার্থী তাইমুর খান বাপ্পির পক্ষে রিটটি করেন আইনজীবী মুনতাসির মাহমুদ রহমান। রিটে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ও স্বাস্থ্য অধিদফতরসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়।

আইনজীবী মুনতাসির মাহমুদ রহমান বলেন, ‘করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এছাড়া কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার সময়সূচি ঘোষণা করা হয়নি। তারপরও কোন বিবেচনায় মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে? তাই রিটে পরীক্ষা পেছানোর দাবি করা হয়।’

শিক্ষার্থীদের দাবির কথা তুলে ধরে আইনজীবী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষা নেয়া হবে ঈদের পর। তাহলে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা কেন এত আগে? এটি তাদের সঙ্গে বৈষম্য করা হচ্ছে।’

আগের নিয়মেই এবারও ভর্তি পরীক্ষা নেবে দেশের মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজগুলো। স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনে কেন্দ্রীয়ভাবে ২ এপ্রিল দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস এবং ৩০ এপ্রিল ডেন্টাল কলেজ ও ইউনিটগুলোর বিডিএস কোর্সের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

গত ৪ ফেব্রুয়ারি স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

দেশে বর্তমানে সরকারিভাবে পরিচালিত মেডিকেল কলেজের সংখ্যা ৩৭টি। এগুলোতে মোট আসন সংখ্যা চার হাজার ৩৫০। এ বছর এক লাখ ২২ হাজার ৮৭৪টি আবেদনের হিসেবে আসনপ্রতি লড়বেন ২৮ জনের বেশি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.