হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: হেফাজতে ইসলাম

সুনামগঞ্জের শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা ও লুটপাটের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এবং এ ঘটনা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

শুক্রবার দুপুরে সংবাদমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতি সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী এমনটা দাবি করেন।

বিবৃতিতে আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, সুনামগঞ্জের শাল্লায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলায় আমরা নিন্দা জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত নিরীহ হিন্দু পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করছি। সরকারের কাছে এহেন নিন্দনীয় হামলায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

তিনি বলেন, আমরা জানতে চাই, কারা এ হামলার নেতৃত্ব দিয়েছে এবং কারা হাজার হাজার হামলাকারীকে সংগঠিত করেছে? এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি বলেও গণমাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি। আগেভাগে হামলার আশঙ্কা জেনেও স্থানীয় প্রশাসন কেন যথাসময়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়নি? এ অবহেলা বা ব্যর্থতার দায় অবশ্যই সেখানকার প্রশাসনকেই নিতে হবে।

বিবৃতিতে ভারতের ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী শাসক দলের প্রধানমন্ত্রী ও গুজরাটের কসাইখ্যাত আখ্যা দিয়ে নরেন্দ্র মোদির আসন্ন আগমনের ইঙ্গিত দিয়ে তিনি আরও বলেন, মোদি এ দেশে আসার প্রাক্কালে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে কথিত ফেসবুক পোস্টের নাটক সাজিয়ে নিরীহ হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে এমন ন্যক্কারজনক হামলার ঘটনা ঘটানো হয়েছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় আসার জন্য উগ্র হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সেখানে বাংলাদেশের তথাকথিত হিন্দু নির্যাতনের কাহিনী প্রচার করে রাজনৈতিক সুবিধা নিতে চায় সব সময়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.