ছোট্ট সাজিদকে বাঁচাতে গিয়ে ডুবে গেলেন বাবাও

কলাগাছের ভেলায় চড়ে পাশের বোরোধানের ক্ষেত পরিচর্যার কাজে যাচ্ছিলেন কৃষক জাকারিয়া ও তার শিশু সন্তান সাজিদ। কিছুদুর যেতেই ব্রহ্মপুত্র নদে পড়ে যান ১০ বছর বয়সী সাজিদ। তাকে বাঁচাতে কালক্ষেপণ না করেই নদে ঝাঁপিয়ে পড়েন সাজিদের বাবা জাকারিয়া। সন্তানের সঙ্গে ওই নদে তলিয়ে যান ৫০ বছর বয়সী বাবাও।

শুক্রবার (১৯ মার্চ) দুপুরে নরসিংদীর মনোহরদীর দীঘাকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, দীঘাকান্দি গ্রামের আহাম্মদ আলীর ছেলে জাকারিয়া এবং নিহত জাকারিয়ার ছেলে সাজেদুল ইসলাম সাজিদ।

নিহতের স্বজন ও পুলিশ জানায়, কৃষক জাকারিয়া তার ছেলেকে নিয়ে কলাগাছের ভেলায় করে পার্শ্ববর্তী সনমানিয়া এলাকায় বোরেধানের ক্ষেত পরিচর্যা করতে যাচ্ছিলেন। এ সময় প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়া ওই শিক্ষার্থী নদীতে পড়ে যায়। তাকে উদ্ধার করতে পিতা ঝাঁপিয়ে পড়লে দুজনেই পানিতে তলিয়ে যায়। পরে আশপাশের লোকজন নদী থেকে তাদের উদ্ধার করে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদরে মৃত ঘোষণা করেন।

মনোহরদী থানার উপপুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম জানান, বাবা ছেলের মৃত্যুর খবরে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছি। যেহেতু পানিতে ডুবে মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেছে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে আলোচনাসাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.