৮ মাস পর ফেসবুকে বাকপ্রতিবন্ধী বাবাকে খুঁজে পেল সন্তান

দীর্ঘ আটমাস পর বাক প্রতিবন্ধী বাবাকে খুঁজে পেল সন্তান। এটি এখন শেরপুরের টক অব দ্যা টাউন। ১১ মার্চ রাতে শেরপুর সদর থানা থেকে ওই বাক প্রতিবন্ধী শুক্কুরবার আলীকে (৫২) তার ছেলে সাকিবের (১৮) কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। শুক্কুরবার আলী (৫২) টাঙাইল জেলার ভুয়াপুর থানার মাহাদীপুর এলাকার মৃত ময়েজ মণ্ডলের সন্তান।

নিখোঁজের পর বাবাকে ফিরে পাওয়ার অনুভূতি ব্যক্ত করে সাকিব বলেন, বাবা একদিন হঠাৎ করেই বাড়ি থেকে হারিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুঁজি করার পরও উনাকে পাওয়া না গেলে আমরা আশা হারিয়ে ফেলি। কারণ উনি বাক প্রতিবন্ধী ছিলেন। দীর্ঘ ৮ মাস পর হঠাৎ করে শেরপুর জেলার কিছু ফেসবুক পেইজে বাবার ছবি দেখি। এরপর সাথে সাথে সদর থানার ওসি মামুন ভাইয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে উনি আমাদের জানান যে বাবা বর্তমানে থানা হেফাজতে আছে।

এ কথা নিশ্চিত হওয়ার পর আমরা শেরপুর সদর থানায় এসে বাবাকে পাই। সাকিব আরও বলেন, এত দিন পর বাবাকে ফিরে পেয়ে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারি নাই। আনন্দে চোখে পানি এসে গিয়েছিল। এজন্য সবটুকু কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি শেরপুর সদর থানার ওসি মামুন ভাই ও স্থানীয় ফেসবুক পেজ কর্তৃপক্ষের প্রতি।

এ বিষয়ে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ১১ মার্চ তারিখ ভোরে কয়েকজন ছেলে এই বৃদ্ধকে থানায় নিয়ে আসে। সমস্যা হলো সে কথা বলতে পারে না। তার ইশারা কিছুই বোঝা যাচ্ছিল না। অনেক চেষ্টা করে কিছুই বুজতে পারিনি। এরপর রুবেল নামে এক যুবক উনার ছবি শেরপুরের কয়েকটি ফেসবুক পেইজে পোষ্ট করে।

সেই পোষ্ট দেখে বিকেলে ওই লোকের আত্মীয়-স্বজন আমাকে ফোন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পরে তারা রাতে থানায় হাজির হলে, তাকে তার আত্মীয় স্বজন ও ছেলে সাকিবের কাছে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এসময় শুক্কুরবার আলীর কাছে থাকা নগদ ৮ হাজার ৭৫০ টাকাও তার ছেলে সাকিবের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.