এবার শ্বশুরকে গৃহবন্দীর নির্দেশ দিয়েছেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান

মাশহুর বিন আব্দুল আজিজকে গৃহবন্দী করার নির্দেশ দিয়েছেন সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমান। সৌদি আরবের একটি বিশ্বস্ত সূত্রের বরাত দিয়ে ইরানের ফার্স বার্তা সংস্থা এ খবর দিয়েছে। খবরে প্রকাশ, সৌদি আরবের নিরাপত্তা সংস্থাকে না জানিয়ে আমেরিকার একজন গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তার সাথে বৈঠকের পর এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে।

তবে ঠিক কবে থেকে তিনি গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছেন তা স্পষ্ট নয়। মাশহুর বিন আব্দুল আজিজ হচ্ছেন যুবরাজের স্ত্রী সারার বাবা। একইসাথে তিনি বর্তমান বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজের সৎ ভাই।

বর্তমান বাদশার চার ছোট ভাই এখনো জীবিত রয়েছেন। তারা যেকোনো সময় বাদশাহ ও যুবরাজের জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারেন বলে আশঙ্কা রয়েছে।

সৌদি যুবরাজ এ পর্যন্ত দুই শ’র বেশি প্রিন্স ও রাজনীতিবিদকে আটক করেছেন এবং এদের অনেকেই অর্থের মাধ্যমে মুক্তি পেয়েছেন। এই প্রক্রিয়ায় তিনি হাজার হাজার কোটি ডলার আয় করেছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া সাংবাদিক নির্যাতনের গুরুতর অভিযোগ রয়েছে যুবরাজের বিরুদ্ধে।

জার্মানির দক্ষিণ–পশ্চিমাঞ্চলীয় কার্লসুরের ফেডারেল কোর্ট অব জাস্টিসে সাংবাদিক নির্যাতনের বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস। আদালতে দায়ের করা ৫০০ পৃষ্ঠার অভিযোগে বলা হয়েছে,

সৌদি আরবে অন্তত ৩৪ জন সাংবাদিককে জোরপূর্বক আটকে রাখা হয়েছে। হত্যা করা হয়েছে সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে। এসব সাংবাদিক আইনবহির্ভূত নির্যাতন, যৌন সহিংসতা ও হত্যার শিকার হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.