ফুটপাতে বাচ্চা প্র`সব করলেন ভার`সাম্য`হীন মা, দায়িত্ব নিলেন পুলি`শ

চট্টগ্রামে টহল পুলিশের দ্রুত ব্যবস্থায় প্রাণে রক্ষা পান অপ্রকৃতিস্থ মানসিক ভারসাম্যহী এক প্রসূতি এবং তার নবজাতক। রাস্তার ফুটপাতে সন্তান প্রসবের পরপরই পুলি`শের নজরে আসতেই নিয়ে যাওয়া হয় মেডিকেলে। শেষ পর্যন্ত পরিবারহীন এই মা ও শিশু সন্তানের দায়িত্ব নেয় পুলি`শ। বন্দর থানা সহকারী উপপরিদর্শক (এসআই) আমান উল্লাহ জানান, বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) বন্দর এলাকায় ফুটপাতে সন্তান প্রসবের পর একটি চিৎকার দিয়েই অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন অপ্রকৃতিস্থ মানসিক

ভারসা`ম্যহীন এক প্র`সূতি মা। আর এই চিৎকার শুনে টহল পুলি`শ তাকে উদ্ধার করে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। পুলিশের দ্রুত ব্যবস্থায় মেডিকেলে নিয়ে আসা এবং চিকিৎসকদের কার্যকর চিকিৎসায় প্রসূতি মা ও তার শিশু সন্তান দুজনই বর্তমানে সুস্থ রয়েছে। তবে জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে অপ্রকৃতিস্থ মায়ের কারণে। ফলে হাসপাতালের নার্সদেরকেই এখন শিশুকে তদারকি করতে হচ্ছে। আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালের গাইনি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. তাসমীর সুলতানা

বলেন, ‘বাচ্চা প্রসবের পর উনাকে এখানে আনা হয়। আমরা তাদের তদারকি করছি। এখন বাচ্চা ও মা দুজনই ভালো আছেন।’ বন্দর থানা পুলিশের পরিদর্শক গাজী মো. ফৌজুল আজিম বলেন, বাচ্চা এবং বাচ্চার মাকে সুচিকিৎসার দেয়ার জন্য

আমাদের পুলিশ কমিশনার নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা বাচ্চা ও মায়ের সকল দায়-দায়িত্ব নিয়েছি। সাম্প্রতিক সময়ে চট্টগ্রামের পুলিশ সদস্যরা তিনজন অপ্রকৃতিস্থ প্রসূতি মাকে প্রসবের পর হাসপাতালে নেয়ার পাশাপাশি অন্তত ৬টি শিশুকে বিভিন্ন স্থান

থেকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তুলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.