মিলনের ১ মিনিট আগে যা মুখে দিলে টানা কয়েক ঘন্টা সহবাস করতে পারবেন

যৌন জীবন ঠিক রাখতে কিছু সুনির্দিষ্ট খাবার প্রয়োজন ঠিক যেভাবে দেহের চাহিদা মেটাতে, দেহকে সবল ও কর্মক্ষম রাখতে যেমন খাবার প্রয়োজন। যৌনতা বৃদ্ধি এবং যৌবন ধরে রাখতে বিশেষ কিছু খাবার রয়েছে যা যৌবন ধরে রাখতে সাহায্য করেঃ
আসুনে জেনে নেই এই সব খাবারগুলো –
স্ট্রবেরিঃ স্ট্রবেরি দেহের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে বিধায় শারীরিক সক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’ ও অ্যান্টিঅক্সিডেনট যা পুরুষের স্পারমের সংখ্যা বৃদ্ধি করে।
দুধ

দুধ সুষম খাদ্য হিসেবে খাদ্য তালিকার একেবারেই প্রথমে থাকে সবসময়। দুধে আছে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট, যা আপনার সেক্স পারফর্মেন্স বাড়াতে সহায়তা করে। কারণ পুরুষের ক্ষেত্রে টেঁস টো সটেরন এবং মহিলাদের ক্ষেত্রে ইস্ত্রজেন হরমোন, যা মূলত যৌন জীবন নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।
শুক্রাণুর উৎপাদন, মহিলাদের অভুলেশনের মাধ্যমে ডিম্বাণু তৈরি এবং উভয়ের যৌন আকাঙ্ক্ষা বাড়াতে এই দুই হরমোনের বিকল্প নেই। এছাড়াও এই দুই হরমোন তৈরিতে ফ্যাট জাতীয় খাবারের বিকল্প নেই।
কলিজা

কলিজায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে জিংক। দেহের হরমোন উৎপাদনে এই জিংক অপরিহার্য। পিটুইটারি গ্রন্থি হতে হরমোন নিঃসরণে কাজ করে জিংক। এস্ট্রোজেন তৈরিতে জিঙ্কের ভূমিকা অনেক। শুক্রাণু তৈরিতে জিংক সহায়তা করে।
বাদামঃ সকল ধরনের বাদামেই আছে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট ও কোলেস্টেরল যা দেহের যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে এবং বীর্য তৈরি ও ঘন হতে সাহায্য করে। এর মধ্যে এ্যলমন্ড (কাঠ বাদাম) চিনা বাদাম, কাজু বাদাম, পেস্তা বাদাম খাওয়া বেশি ভাল।
ডিম

ডিমে রয়েছে কোলেস্টেরল, ভিটামিন বি। যা হরমোন উৎপাদন এবং আকাঙ্ক্ষা বৃদ্ধি করে।
কলাতে আছে প্রচুর পরিমাণে লৌহ, জিংক, পটাশিয়াম, মিনারেল, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন- বি কমপ্লেক্স এবং কিছু এনজাইম। এতে আছে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম ও রিবফ্লাবিন যা শারীরিক শক্তি বৃদ্ধি করে দেহকে সুস্থ রাখে এবং বীর্যের মান উন্নত করে। কলায় রয়েছে ব্রমেলাইন নামক এনজাইম যা পুরুষের যৌন সক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এছাড়াও
ট্রাফল

ট্রাফল নামক এক ধরনের ছত্রাকঃ ট্রাফলে পুরুষের যৌন আকাঙ্ক্ষা বাড়ানোর বিশেষ উপাদান থাকে। এছাড়া ট্রাফলের এই উপাদান পুরুষের প্রতি নারীদের যৌন আকর্ষণ বাড়াতে দারুন কাজ করে ।
জায়ফল
ভেষজ চিকিৎসা বিজ্ঞানে, জয়ফল বহু বছর আগে থেকেই যৌন শক্তি বৃদ্ধিতে ব্যবহার হয়ে আসছে। জয়ফলে রয়েছে বিশেষ এক ধরনের কেমিক্যাল, যা সরাসরি কামোদ্দীপক হিসেবে ব্যবহার হয় । স্নায়ুর কোষকে উত্তেজিত করতে পারে এই জয়ফল।
যে কারণে, রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পেয়ে পুরুষাঙ্গের পেনাইল টিস্যুগুলো ফুলে শক্ত হয়ে পুরুষাঙ্গের উত্তান ঘটায় এবং তা দীর্ঘস্থায়ী রাখে।

সূর্যমুখী বীজ
সর্যমুখী বীজ হরমোন বাড়াতে সাহায্য করে থাকে। যে কারণে সূর্যমুখী বীজ খেলে যৌন আকাঙ্ক্ষা বৃদ্ধি পায়।
শিমের বীজ
ফাইটোইসট্রয়জেন সমৃদ্ধ বলে শিমের বীজ যৌন আকাঙ্ক্ষা এবং শক্তি বাড়াতে কাজ করে।

তরমুজঃ তরমুজ কে মূলত প্রাকৃতিক ভায়াগ্রা বলা হয়ে থাকে। এক গবেষণায় জানা গিয়েছে যে তরমুজে রয়েছে এমন কিছু বিশেষ উপাদান যা দেহের যৌন উত্তেজনা বাড়াতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.