1. ataurrahmanlabib2017@gmail.com : News Live : News Live
  2. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
January 17, 2022, 4:18 am

স্কুল-কলেজ ৩০ মার্চ খুললেও বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে

রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম Monday, March 8, 2021
  • 30 Time View

ঢাকা শিক্ষা বোর্ড ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২ হাজার ২৫৩। শিক্ষক ৫২ জন। শ্রেণিকক্ষ ৪৩টি। করোনাকালে ৩০ মার্চ থেকে কীভাবে শ্রেণি কার্যক্রম চলবে, তার একটি পরিকল্পনা সাজিয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ।

এর মধ্যে রয়েছে একই শ্রেণিতে পড়া শিক্ষার্থীদের একাধিক ভাগে ক্লাস নেওয়া, শ্রেণিকক্ষে ছয় ফুটের বেঞ্চে দুজন করে এবং চার ফুটের বেঞ্চে একজন শিক্ষার্থীকে বসানো। দুই বেঞ্চের মাঝে একটি বেঞ্চ ফাঁকা থাকবে।পঞ্চম, দশম ও দ্বাদশ শ্রেণি ছাড়া অন্যান্য শ্রেণির শিক্ষার্থীরা সপ্তাহে এক দিন করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আসবে—এমন নির্দেশনা আগেই দিয়ে রেখেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এটি বিবেচনায় নিয়ে ল্যাবরেটরি স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, প্রথম থেকে চতুর্থ, ষষ্ঠ থেকে নবম এবং একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহের ভিন্ন ভিন্ন দিনে আনা হবে, যাতে অন্তত দুটি শ্রেণির বেশি শিক্ষার্থীদের একই দিনে আসতে না হয়। রাজধানীর মিরপুর এলাকায় অবস্থিত এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. জহিরুল হক জানালেন,

সরকারের নির্দেশনা মেনে তাঁরা স্কুল–কলেজ খোলার বিষয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। স্কুল-কলেজ ৩০ মার্চ খুললেও বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে ২৪ মে থেকে। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার আগেই স্কুল-কলেজ খোলা নিয়ে অনেকের মধ্যে নানা প্রশ্ন উঠেছে। অবশ্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে একসঙ্গে অসংখ্য শিক্ষার্থী থাকায় এখনই হল খুলতে চাচ্ছে না সরকার।

১ লাখ ৩০ হাজার আবাসিক শিক্ষার্থীকে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে চায় সরকার। এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের মতো অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোও নিজেদের সুবিধামতো প্রস্তুতি নিচ্ছে। করোনা সংক্রমণের কারণে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে ছুটি চলছে। দীর্ঘ ছুটির কারণে শিক্ষার্থীরা মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছে।

সরকারি-বেসরকারি স্কুল, এনজিও পরিচালিত স্কুল ও কিন্ডারগার্টেন মিলিয়ে দেশের প্রাথমিক স্তরে মোট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১ লাখ ২৯ হাজার ২৫৮টি। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্র–ছাত্রী প্রায় ২ কোটি, আর ২০ হাজার ৬৬০টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পড়ে ১ কোটি ৩ লাখের বেশি শিক্ষার্থী। এ ছাড়া ৪ হাজার ৫৫১টি কলেজে শিক্ষার্থী প্রায় ৪৪ লাখ। দেশের ৯ হাজার ২৭৮টি আলিয়া মাদ্রাসায় পড়ে প্রায় ২৫ লাখ শিক্ষার্থী।

সরকারি সিদ্ধান্তে ৩০ মার্চ থেকে দেশের প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। তবে শুরুতে সব শ্রেণির ক্লাস প্রতিদিন হবে না। প্রথমে উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের দ্বাদশ, মাধ্যমিক পর্যায়ে দশম এবং প্রাথমিকের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন (সপ্তাহে ছয় দিন) ক্লাস হবে। আর শুরুর দিকে প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে এক দিন ক্লাস হবে।

নবম ও একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে দুদিন করে ক্লাস হবে, আর প্রাক্-প্রাথমিকের ক্লাস আপাতত বন্ধই থাকছে। মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) জানিয়েছে, ১০ মার্চের মধ্যে প্রস্তুতির বিষয়ে তথ্য দিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাদের কাছে তিন ধরনের তথ্য চাওয়া হয়েছে। প্রথমত, প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে কি না, দ্বিতীয়ত ৩০ মার্চের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে পারবে কি না এবং তৃতীয়ত ২৯ মার্চের মধ্যে ব্যবস্থা নিতে না পারলে তার কারণগুলো জানাতে বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এছাড়া আরো সংবাদ
2020সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | নিউজলাইভ 24.কম সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন
উন্নয়নেঃ সাইট পুল