Breaking News

একটা ছেলে ৪টা বিয়ে করতে পারলে আমরা মেয়েরা কেনো পারবো নাঃতামিমা

জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসির হোসেনের স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির সাবেক স্বা’মী রাকিব হাসান জানিয়েছেন, তিনি সাবেক স্ত্রী’কে আর জীবনে ফিরে পেতে চান না।বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টার দিকে একটি বেস’রকারি চ্যানেলকে তিনি এ কথা বলেন।
রাকিব বলেন, ডিভোর্সের কোনো কপি আমি পাইনি।এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তামিমাকে জীবনে আর ফেরত চাই না। কিন্তু এই মিথ্যা কথাগুলো ধরা আমার লক্ষ্য।এতে তার কী লাভ জানতে চাইলে রাকিব বলেন, মুখোশ খুলে লাভ আমার একার না, সমগ্র পুরু’ষ জাতির।

যেসব বউরা এমন করতে চায়, যাদের চরিত্র ভালো না তারা সাবধান হবে। আর যারা অন্যদের বউকে নিয়ে যেতে চায় তারাও সাবধান হবে।স’ন্তানকে জো’র করে রেখে দেয়ার অভিযোগের বি’ষয়ে জানতে চাইলে অস্বীকার করেন তিনি।
স’ন্তানকে নিয়ে শাশুড়ির জি’ডি প্রস’ঙ্গে বলেন, তিনি (শাশুড়ি) চান না আমার মে’য়ে আমার কাছে থাক। কারণ তিনি আমাকে পছন্দ করেন না।চলমান পরীক্ষা স্থগিতের প্র’তিবাদে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নিয়ে সকাল থেকেই আন্দোলন করছিলেন সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। আন্দোলন চলাকালে বিভিন্ন ব্যানার,

হাতে লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে হাজির হন তারা।হাজারও শিক্ষার্থীর ভিড়ে ব্যতিক্রম চরিত্রে দেখা গেছে চার শিক্ষার্থীকে। চারজনই গায়ে কাফনের কাপড় জড়িয়ে এসেছেন। সাদা কাপড়ে বুকের ও’পর লেখা ছিল ‘হয় পরীক্ষা নাও, না হয় জীবন নাও’।
এমন ব্যতিক্রমী প্র’তিবাদের বি’ষয়ে জানতে চাইলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থী সাব্বির বলেন, ‘দীর্ঘ সেশনজটে আমাদের জীবন অ’তিষ্ঠ হয়ে গেছে। মাত্র একটা পরীক্ষা বাকি, এখন যদি পরীক্ষা স্থগিত হয় আমরা কবে চাকরিতে যোগ দেব? পরিবার তাকিয়ে আছে কবে সংসারের হাল ধরব। এ জন্যই আমাদের এমন প্র’তিবাদ।’

আন্দোলনরত আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ‘দীর্ঘ সেশনজটে আমাদের অনেক সময় ন’ষ্ট হয়েছে। কর্তৃপক্ষ কি বোঝে একটা নিম্নবিত্ত পরিবারের স’ন্তানের ঢাকায় পড়ালেখার খরচ চালাতে কত ক’ষ্ট হয়! অনার্স শেষ না হওয়ায় আমরা চাকরিতে যোগ দিতে পারছি না। আমরা এর প্রতিকার চাই।’
মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই চলমান পরীক্ষা স্থগিতের প্র’তিবাদে নীলক্ষেতে আন্দোলন করেন শিক্ষার্থীরা। পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, আজ সকাল ৯টায় আবারও নীলক্ষেতে জড়ো হন শিক্ষার্থীরা। দুপুরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের একটি অংশ সাইন্সল্যাব মোড় অ’বরোধ করে। এতে আশপাশ এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

বুধবার দুপুরে এক অনলাইন সভায় সাত কলেজের পরীক্ষা চলমান থাকার সি’দ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় যুক্ত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের স’চিব মো. মাহবুব হোসেন,
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপা’চার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান, উপ-উপা’চার্য (শিক্ষা) ও সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়কারী অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল, সাত কলেজের সমন্বয়কসহ কলেজের অধ্যক্ষরা।পরীক্ষা শুরুর ঘোষণা আসার পরপরই রাজধানীর নীলক্ষেত ও সাইন্সল্যাব মোড়ের অ’বরোধ তুলে নেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে সাত কলেজের স্নাতক তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষের স্থগিত পরীক্ষার সংশোধিত সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাবির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক বাহলুল হক চৌধুরী স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ সময়সূচি প্রকাশ করা হয়।
এতে বলা হয়েছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত স’রকারি সাত কলেজের ২০১৯ সালের তৃতীয় বর্ষ স্নাতক পরীক্ষার্থীদের স্থগিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষাগুলো ২৮ ফেব্রুয়ারি, ৩, ৬, ৯ ও ১৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন সকাল ৯টায়পরীক্ষা শুরু হবে। সূচিতে পরীক্ষার কেন্দ্রও ঘোষণা করা হয়েছে।

Check Also

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় যেভাবে হবে মানবণ্টন

এ বছর এসএসসি ও এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে তিনটি বিষয়ে প্রত্যেক পত্রে ৩২ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *