স্বামীর কোন পাশে স্ত্রীর ঘুমানো উত্তম?

স্বামী সব সময় স্ত্রীর ডান পাশে ঘুমাবে বা অবস্থান করবে- সমাজে এমনটিই প্রচলিত আছে। এমনকি হাঁটার সময়, যানবাহনে চলাচলের সময় কিংবা ঘুমানোসহ সব সময় স্বামী তার স্ত্রীর ডান পাশে থাকবে। স্ত্রীর ঘুমানো বা চলাফেরা সম্পর্কে ইসলামে এ রকম কোনো দিকনির্দেশনা আছে কি?

না, স্ত্রী ঘুমানোর সময় স্বামীর ডান পাশে ঘুমাবে এমন কোনো নিয়ম ইসলামে নেই। তবে সব ভালো কাজই ডান দিক থেকে শুরু করতে হয়। এটি সুন্নতও বটে। কিন্তু স্বামী-স্ত্রীর ঘুমানো, একসঙ্গে চলাফেরা কিংবা অবস্থানের সময় বাধ্যতামূলকভাবে স্বামীকে ডান পাশে থাকতে হবে, এটি সঠিক নয়। ইসলামে এ সম্পর্কে সুস্পষ্ট কোনো দিকনির্দেশনাও নেই।

স্ত্রীর জন্য যে পাশে ঘুমানো নিরাপদ সে পাশে ঘুমানোই উত্তম। তবে প্রত্যেক নারী-পুরুষের জন্য ডান কাতে (পাশ ফিরে) ঘুমানো সুন্নত। কেননা নবিজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ঘোষণা করেছেন-হজরত আল বারাআ ইবনু আযিব রাদিয়াল্লাহ আনহু বর্ণনা করেছেন, একদিন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাকে বললেন-

إِذَا أَتَيْتَ مَضْجَعَكَ فَتَوَضَّأْ وُضُوءَكَ لِلصَّلَاةِ ، ثُمَّ اضْطَجِعْ عَلَى شِقِّكَ الْأَيْمَنِ

‘যখন রাতে ঘুমানোর প্রস্তুতি নেবে তখন নামাজের অজুর ন্যায় অজু করে ডান কাতে শুয়ে বলবে-

اللَّهُمَّ أَسْلَمْتُ وَجْهِي إِلَيْكَ، وَفَوَّضْتُ أَمْرِي إِلَيْكَ، وَأَلْجَأْتُ ظَهْرِي إِلَيْكَ، رَهْبَةً وَرَغْبَةً إِلَيْكَ، لَا مَلْجَأَ وَلَا مَنْجَى مِنْكَ إِلَّا إِلَيْكَ

উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা আসলামতু ওয়াঝহিয়া ইলাইকা, ওয়া ফাওয়্যাদতু আমরি ইলাইকা, ওয়া আলঝাআতু জাহরি ইলাইকা, রাহবাতান ওয়া রাগবাতান ইলাইকা, লা মালঝাআ ওয়া লা মানঝা মিনকা ইল্লা ইলাইকা।’

অর্থ : ’হে আল্লাহ! আমি নিজেকে আপনার নিকট সমর্পণ করলাম ও আপনার অনুগত হলাম, আমার কাজ আপনার উপর ন্যস্ত করলাম, আমার পিঠ আপনার নিকট সোর্পদ করলাম এবং আপনার সাহায্যের প্রতি আমি ভরসা করলাম আপনার প্রতি আগ্রহে ও ভয়ে। আপনি ছাড়া অন্য কোথাও মুক্তি ও নিরাপত্তার স্থান নেই।‘ (মুসলিম, আবু দাউদ ৫০৪৬)

স্বামী-স্ত্রী পরস্পর তাদের সুবিধা অনুযায়ী ডান কিংবা বাম দিকে অবস্থান করতে পারবে। বরং স্ত্রী যে দিকে অবস্থান করলে বা থাকলে নিরাপদে থাকবে এবং চলাচলে সুবিধা হবে, সে দিকে থাকাই উত্তম। আর স্ত্রীকে এ নিরাপত্তা ও সুবিধা দেয়া স্বামীর একান্ত দায়িত্ব এবং কর্তব্য।

স্ত্রী যদি অসুস্থ হয়, গর্ভবর্তী হয় কিংবা শত্রুর ভয়ে ভীত হয়; তবে স্ত্রীর প্রতি খেয়াল বা যত্ন নেওয়া স্বামীর জন্য আবশ্যক। এ অবস্থাগুলোতে চলাফেরা, বসা কিংবা ঘুমানোর সময় স্ত্রীর সুবিধা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করাও জরুরি। প্রচলিত নিয়মের ব্যতিক্রম হলে স্ত্রীর কোনো গুনাহ হবে না।

উল্লেখ্য, সমাজে প্রচলিত আছে কিংবা সমাজের অনেক মানুষ মনে করেন যে, স্ত্রীকে নিয়ে রাস্তায় হাঁটার সময়, যানবাহনে চলার সময় বা কোথাও বসার সময় স্ত্রীকে বাম পাশে রাখতে হয়। অন্যথায় দাম্পত্য জীবনে অমঙ্গল হয়। এটি নিতান্তই কুসংস্কার। বরং এ ধরনের মতামতের ওপর সুদৃঢ় বিশ্বাস রাখা গুনাহের কাজ।

তবে হ্যাঁ, রাস্তায় চলাচলের সময় নিরাপত্তার স্বার্থে যে পাশে গাড়ি বা যানবাহন চলাচল করে সে পাশে স্ত্রী-সন্তানদের না রেখে বিপরীত পাশে রেখে চলাচল করা সতর্কতার দিক থেকে উত্তম। এটা ইসলামি শরিয়তের বিধি-নিষেধের কোনো বিষয় নয় বরং নিরাপত্তার বিষয়।

স্বামী-স্ত্রী উভয়ের উচিত, পরস্পরের সুবিধা ও নিরাপত্তার স্বার্থে যে দিকে থাকলে সুবিধা, সেদিকে থাকাই উত্তম। আর চলাফেরা কিংবা ঘুমানোর সময় ডান দিকের ওপর গুরুত্ব দেওয়া উচিত।আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে স্বাভাবিক কোনো বিষয়ে বাড়াবাড়ি আবার সুন্নতের বিষয়ে ছাড়াছাড়ি না করে সুবিধা-নিরাপত্তা ও শান্তি-শৃঙ্খলার ওপর গুরুত্বারোপ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Leave a Comment