স্ত্রীকে গ্যাস ট্যাবলেট খাইয়ে পালিয়েছে স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়ি আটক

সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার চক ঝুরঝুরি গ্রামের একটি পুকুর পাড় থেকে নাসিমা খাতুন (২৬) নামে এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের শ্বশুর-শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকে স্বামী সুমন আলী পলাতক রয়েছেন।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে বাড়ির পাশের পুকুর পাড় থেকে মরদেহ উদ্ধার করে তাড়াশ থানা পুলিশ। নিহত নাসিমা চক ঝুরঝুরি গ্রামের সরোয়ারের ছেলে সুমনের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্বামীসহ পরিবারের লোকজন নাসিমাকে প্রতিনিয়ত নির্যাতন করতেন। শুক্রবার গভীর রাতে তাকে বেধড়ক পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে স্বামী। এ সময় জোর করে গ্যাস ট্যাবলেট খাইয়ে পুকুর পাড়ে ফেলে আসে স্বামী ও শ্বশুর। পরে নাসিমার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তাদের কাছে ঘটনার বর্ণনা করার কিছুক্ষণ পর নাসিমা মারা যায়।

তাড়াশ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম ঢাকা পোস্টকে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যুর আগে নাসিমা উপস্থিত লোকজনের কাছে স্বামী ও শ্বশুরের নির্যাতন ও গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়ানোর বিষয়ে ভিডিও সাক্ষাতকার দিয়েছেন বলে জেনেছি। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার শ্বশুর ও শাশুড়িকে থানায় আনা হয়েছে। তবে স্বামী পালিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।