মাকে ভরণপোষণ না দেওয়ায় ছেলে-বৌমা গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহে নির্যাতন ও ভরণপোষণ না দেওয়ায় ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক মা। এ মামলায় ছেলে সাইফুল্লাহ (৪৪) ও তার স্ত্রী রুমাকে (৩০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।বুধবার (২৬ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে শহরের ব্যাপারীপাড়া এলাকার বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত সাইফুল্লাহ ঝিনাইদহ পিটিআইর ইন্সট্রাক্টর বলে জানা গেছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, শহরের ব্যাপারীপাড়া এলাকার গৃহবধূ জহুরা খাতুনকে তার সন্তান সাইফুল্লাহ ও পুত্রবধূ রুমা বিভিন্ন সময় শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন। শারীরিক অসুস্থতায় ঠিকমতো চিকিৎসা করাতেন না। ভরণপোষণও দিতেন না। এসব অভিযোগে বুধবার দুপুরে ছেলে ও ছেলের স্ত্রীর নামে থানায় মামলা করেন জহুরা খাতুন।

তিনি বলেন, আমার হার্টে ব্লক। ছেলে ও ছেলের বউ আমাকে ঠিকমতো খেতে দেয় না। আমার শরীর খুব খারাপ, ডাক্তারের কাছেও নিয়ে যায় না। আমি কিছু বললে তারা আমাকে মারধর করে। তাদের অত্যাচার আমি মেনে নিতে পারছি না। আমার স্বামী নেই। ৩৩ বছর ধরে কষ্ট করে ছেলেকে লেখাপড়া করিয়ে বড় করেছি। আমি তার টাকা নিই না। আমার টাকাতেই আমাকে ডাক্তার দেখাবে, তবুও ডাক্তারের কাছে নেয় না। আমি চাই, আমার ছেলে আমাকে দেখাশোনা করুক। একটু খেতে দিক আমাকে।

ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা বলেন, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত ছেলে ও ছেলের স্ত্রীকে রাতেই গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে সোপর্দ করা হবে।