মাকে বাঁচাতে মেঘনায় ছেলের ঝাঁপ

মুন্সীগঞ্জের মেঘনা নদীতে একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ থেকে ছেলের সঙ্গে অভিমান করে নদীতে লাফিয়ে পড়েন মা। এ সময় মাকে বাঁচাতে ছেলেও নদীতে ঝাঁপ দেয়। তবে পরে মা সাঁতরে তীরে উঠলেও, ছেলের আর খোঁজ মেলেনি।

সোমবার (১০ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মুন্সীগঞ্জ গজারিয়া লঞ্চঘাটের অদূরে চর-কিশোরগঞ্জ নামক এলাকার মেঘনা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজের বাড়ি শরীয়তপুর জেলার সখীপুরে বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও নৌ-পুলিশের সদস্যরা জানান, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে শরীয়তপুর থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি বায়েজিদ জোনায়েদ-১ থেকে এক নারী আকস্মিক নদীতে ঝাঁপ দেন। এ সময় তাকে বাঁচাতে তার ছেলেও নদীতে ঝাঁপ দেয়। পরে লঞ্চ থেকে লাফিয়ে পড়া নারী নিজে সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন। তবে ছেলে এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

গজারিয়ায় নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক রিয়াজুর জান্নাত বলেন, মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় লঞ্চ ঘাটের অদূরে মেঘনা নদীতে মাকে বাঁচাতে নদীতে ঝাঁপ দেওয়া ছেলের উদ্ধারে কাজ করছে নৌ-পুলিশ ও কোস্টগার্ড সদস্যরা। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবুরি দলও উদ্ধার কাজে অংশ নিয়েছে।