বিশ্বজয়ী হাফেজ তাকরিমকে নিয়ে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর স্ট্যাটাস

১১১ দেশের ১৫৩ হাফেজের মধ্যে অনুষ্ঠিত কুরআন তিলাওয়াত প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে বাংলাদেশের হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম।এ খবর জানার পর পর বিশ্বজয়ী তাকরিমকে অভিবাদন জানাচ্ছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তাকরিমকে অভিনন্দন জানানো হচ্ছে।

হাফেজ তাকরিমকে অভিবাদন জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলও। তাকরিমের অর্জনে শুকরিয়া জ্ঞাপন করেছেন তিনি।
শুক্রবার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রতিমন্ত্রী লিখেছেন— ‘পবিত্র মক্কায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক কুরআন প্রতিযোগিতায় বিশ্বের ১১১ দেশের ১৫৩ জনের মধ্যে কুরআনের সুমিষ্ট স্বরের পাখি বাংলাদেশের হাফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে, আলহামদুলিল্লাহ। পুরস্কার হিসাবে পেয়েছে সাড়ে সাঁতাইশ লাখ টাকা।’

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের পবিত্র মক্কায় ‘৪২তম বাদশাহ আব্দুল আজিজ আন্তর্জাতিক হিফজুল কুরআন’ প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন ফেজ সালেহ আহমদ তাকরিম। বুধবার রাতে মক্কার পবিত্র হারাম শরিফে একটি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে চূড়ান্ত বিজয়ীদের মধ্যে তৃতীয় বিজয়ী হিসেবে তাকরিমের নাম ঘোষণা করা হয়। এ সময় তার হাতে এক লাখ রিয়াল (প্রায় সাড়ে ২৭ লাখ টাকা) পুরস্কার, সনদ ও সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তার উপদেষ্টা ও মক্কা নগরীর গভর্নর খালেদ আল ফয়সাল বিন আবদুল আজিজ এবং দেশটির ইসলাম ও দাওয়াহবিষয়ক মন্ত্রী ড. আবদুল লতিফ বিন আবদুল আজিজ আলে শেখসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

সালেহ আহমাদ তাকরিম টাঙ্গাইলের নাগরপুর থানার ভাদ্রা গ্রামের হাফেজ আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি গুলশান সোসাইটি জামে মসজিদের খতিব মুফতি মুরতাজা হাসান ফয়েজী মাসুম প্রতিষ্ঠিত ‘মারকাযু ফয়জিল কুরআন আল ইসলামি ঢাকা’র হিফজ বিভাগের শিক্ষার্থী।