বঙ্গবন্ধুর খুনিদের জান্নাত চাইলেন সেই আ. লীগ নেতা

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধির সামনে দাঁড়িয়ে দোয়া করতে গিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের জান্নাতবাসী করার কথা বলেছেন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগ দলীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাহাবুবুর রহমান বাবুলওই মোনাজাতের একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।

এ ঘটনায় তার শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।এ ঘটনার আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি একটি ওয়াজ মাহফিলে বক্তব্য দেওয়ার সময় বাবুল বলেছিলেন, আমি বারদী ইউনিয়নের ম্যাজিস্ট্রেট, প্রধানমন্ত্রীকে বারদীকে আসতে হলেও আমার অনুমতি নিয়ে আসতে হবে।

ওই সময় তাকে শাস্তি ও দল থেকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেয় জেলা আওয়ামী লীগ। পরে তাকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকেও তাকে শোকজ করা হয়। পরে সংবাদ সম্মেলন করে ক্ষমা চাওয়ার পর মাহাবুবুর রহমান বাবুলকে আবার দলে ফিরিয়ে নেওয়া হয়।

দলীয় ও সর্বশেষ ভিডিও সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে টুঙ্গিপাড়ায় যান। তারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাতে অংশ নেন। মোনাজাত পরিচালনা করেন বারদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সাবেক সদস্য মাহাবুবুর রহমান বাবুল।

মোনাজাতের মাঝখানে মাহাবুবুর রহমান বাবুল বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের মহান আল্লাহ তুমি জান্নাতবাসী করো।
মোনাজাতে অংশ নেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল ইসলাম ভূঁইয়া, আওয়ামী লীগের দলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কায়সার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুদুর রহমান মাসুম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার ওসমান গনি প্রমুখ।