https://www.highperformancecpmgate.com/mpd7i4drgw?key=8c9246005c069d2f701e13c70787cd45
https://www.highperformancecpmgate.com/mpd7i4drgw?key=8c9246005c069d2f701e13c70787cd45

প্রেমিকার মায়ের সঙ্গেও ঘ.নিষ্ঠতা ছিল অয়নের…

দশমীর দিন প্রেমিকার সঙ্গে বেরিয়ে নিখোঁজ হয় হরিদেবপুরের বাসিন্দা অয়ন মণ্ডল (২১)। এরপর মগরাহাটে উদ্ধার হয় যুবকের মৃতদেহ। মৃতের পরিবারের তরফে প্রেমিকার বিরুদ্ধেই খুনের অভিযোগ আনা হয়েছে। এরইমধ্যে আরও একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এল। প্রেমিকার মায়ের সঙ্গেও সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন অয়ন। ত্রিকোণ প্রেমের জেরেই কি নির্মম পরিণতি? উঠছে প্রশ্ন।

পুলিশ সূত্রে খবর, প্রেমিকার পাশাপাশি মায়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল অয়নের। একথা কোনওভাবে জানতে পারে অভিযুক্ত প্রেমিকার ভাই। এরপরই দশমীর দিন ফোন করে নিজের বাড়িতে আসতে বলেন কিশোরী। বাড়িতেই দুপক্ষের বচসা শুরু হলে আচমকাই ভারি জিনিস দিয়ে অয়নের মাথায় আঘাত করে প্রেমিকার ভাই। ঘটনাস্থলেই রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়ে এবং মৃত্যু হয় যুবকের।

প্রমাণ লোপাটের জন্য মৃতদেহ সরিয়ে ফেলার চেষ্টা শুরু করে অভিযুক্তরা। একটি পণ্যবাহী গাড়ি ভাড়া করে অয়নের দেহ ত্রিপলা দিয়ে ঢেকে মগরাহাট পুলিশ ক্যাম্পের নিকটবর্তী একটি নির্জন জায়গায় ফেলে দেওয়া হয়। মৃতের মোবাইল ফেলে দেওয়া হয় নেপালগঞ্জে।

অন্যদিকে, অয়ন মণ্ডলের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের মারফত খবর, প্রেমিকাকে বিয়ে করতে অ্যাপ বাইক চালিয়ে রোজগার শুরু করেন তিনি। কিন্তু গত কিছু সময় ধরে অয়নের সঙ্গে সম্পর্ক রাখা পছন্দ করছিলেন না। ফলে দুজনের সম্পর্কে চিড় ধরতে শুরু করে। তবে দশমীর দিন প্রেমিকাই নিজে ফোন করে ডেকে পাঠায়।

ইতিমধ্যেই প্রেমিকা সহ তাঁর বাবা-মা ও ভাই এবং ভাইয়ের বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গাফিলতির অভিযোগ এনে হরিদেবপুর থানায় বিক্ষোভের পাশাপাশি ধৃতদের বাড়িতেও ব্যাপক ভাঙচুর চালায় ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা।

Leave a Comment

https://www.highperformancecpmgate.com/mpd7i4drgw?key=8c9246005c069d2f701e13c70787cd45