প্রতিবন্ধী সেই শিশু ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসার চেষ্টা, মেম্বার গ্রেফতার

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী সেই শিশুটিকে ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসার চেষ্টা ও মামলা করতে বাধা দেওয়ায় গ্রেফতার হয়েছেন মো. জিন্নাহ নামে এক ইউপি সদস্য (মেম্বর)।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে বন্যাকান্দি বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।গ্রেফতার জিন্নাহ ওই গ্রামের সাহেদ আলীর ছেলে ও পঞ্চক্রোশী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য।

এর আগে, শিশুটিকে নির্যাতনের ঘটনায় ধর্ষক বন্যাকান্দি গ্রামের হযরত আলীর ছেলে সবুজ ও ইউপি সদস্যসহ জিন্নাহসহ চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার অন্য আসামিরা হলেন- মৃত দারোগ আলীর ছেলে হযরত আলী (৫৮) ও আব্দুর রশিদ (৪৮)।

উল্লাপাড়া মডেল থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) আব্দুস সালাম জানান, প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে সবুজ (৩২) নামে যুবক নির্যাতিত বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুটির বাড়িতে যাতায়াত করতেন। বিভিন্ন সময় শিশুটিকে পোশাক ও গয়নার লোভও দেখাতেন তিনি। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে বৃদ্ধা দাদির সঙ্গে ঘুমাচ্ছিল শিশুটি। ভাঙা জানালা দিয়ে চুপিসারে ঘরে প্রবেশ করে সবুজ। পরে শিশুটিকে ফুসলিয়ে বাড়ির পাশেই নদীর পাড়ে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে সবুজ পালিয়ে যায়।

উল্লাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নজরুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসার জন্য ইউপি সদস্য জিন্নাহ ভিকটিমকে থানায় আসতে বাধা দেওয়া তিনিও মামলার আসামি হয়েছেন। এ মামলায় তাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য সিরাজগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Comment