জন্মদিনে শাকিবের উপহার পেয়ে বুবলির চোখে পানি চলে এসেছিল

সম্পর্কটা সুরে বাজছে না। বেশ কিছু দিন ধরে অনেকটা বেসুরো হয়ে গেছে। অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগে ভাঙন স্পষ্ট। তারপরও হেমন্তের এই শীতল-রোদে কিঞ্চিৎ বরফ গলার আভাস। জন্মদিন উপলক্ষে স্ত্রী বুবলীকে দামি উপহার দিলেন শাকিব। গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে নায়িকা নিজেই জানালেন সেকথা।

রোববার (২০ নভেম্বর) ছিল ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা শবনম বুবলীর জন্মদিন। দিনটিতেও ছিলেন শুটিংয়ের কাজে ব্যস্ত— নেননি ছুটি। তার জন্য পরিচালকের আর্থিক ক্ষতি হোক চাননি ‘বসগিরি’ নায়িকা।বুবলী বলেন, “জসিম উদ্দিনের ‘মায়া’ ছবির শুটিং চলছিল উত্তরায়। আগে থেকেই শিডিউল দেওয়া। জন্মদিনের কারণে পরিবর্তন করিনি। কারণ, শিডিউল দিয়েও একটা দিন কাজ না করলে পরিচালকের ক্ষতি হতো।”

জন্মদিনের প্রথম প্রহরে মা, বাবা ও বোনদের সঙ্গে কেক কেটে জন্মদিন পালন করেন বুবলী। তবে চমক উপহার পান ছেলে বীরের মুখে যখন ভাঙা ভাঙা গলায় বলতে শোনেন , ‘হ্যাপি বাড, হ্যাপি বাড…’। বীরের মুখে এ কথা শুনে খুব হেসেছেন মা বুবলী। তার কথায়, ‘কয়েক দিন ধরে বাসায় হয়তো আমার জন্মদিন নিয়ে আলোচনা হয়েছে, ও হয়তো শুনে শুনে মনে রেখেছে। ছোট্ট মানুষ, পরিষ্কারভাবে তো আর বলতে পারে না।’

সবার কথা তো শোনা হলো। এবার প্রশ্নটা ছিল বীরের বাবা শাকিব জন্মদিনে কী উপহার দিলো? বুবলীর জবাব, ‘দেখুন, ও নিজের জন্মদিন নিয়েই তেমন একটা এক্সাইটেড থাকে না। ওভাবে সেলিব্রেটও করে না। জন্মদিন উপলক্ষে আমাকে একদিন আগেই উইশ করেছে। গত সপ্তাহে আমাকে সে

উপহার কিনে দিয়েছে। আমি আগে থেকে জানতাম না উপহারটি কী। যখন খুলে দেখলাম ডায়মন্ডের নাকফুল, দেখে আমার চোখে জল চলে এসেছিল। এটি হাতে নিয়ে আমি আবেগপ্রবণ হয়েছিলাম। আমি মনে করি, এ উপহার আমার জন্য তার অন্য রকমের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ।’উল্লেখ্য, বুবলী সম্প্রতি নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর ‘প্রহেলিকা’ সিনেমায় নিজের অংশের শুটিং শেষ করেছেন। বর্তমানে ব্যস্ত আছেন ‘মায়া’ ছবির শুটিংয়ে। এছাড়া তার হাতে আছে ‘দেয়ালের দেশ’ নামের আরেকটি ছবির কাজ।