চট্টগ্রামে বিমা কর্মকর্তাকে অপহরণ করে আপত্তিকর ছবি, গ্রেপ্তার ৪

চট্টগ্রামে বেসরকারি বিমা প্রতিষ্ঠানের এক কর্মকর্তাকে অপহরণের ঘটনায় চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অপহৃত ব্যক্তিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ সোমবার ভোরে নগরের হালিশহর থানার মুহুরীপাড়ার এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তার আসামিরা হলেন- জাহেদ আলম (১৮), বেলাল হোসেন (১৮), মো. কাউছার (১৯) ও মো. ইমন (১৮)। উদ্ধার হওয়া খোরশেদুল আলম (৫৯) নগরের জুবিলী রোডের একটি বেসরকারি বিমা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। তার বাসা নগরের পাঁচলাইশ আবাসিক এলাকায়।

পুলিশের দাবি, গ্রেপ্তার আসামিরা সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের সদস্য। সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে ঘোরাঘুরি করে। টার্গেট করা ব্যক্তিকে যাত্রী হিসেবে গাড়িতে তুলে জিম্মি করে আপত্তিকর ছবি তুলে তা ছড়ানোর ভত দেখিয়ে টাকা আদায় করে।

পুলিশ জানায়, গত রোববার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে কে সি দে রোড থেকে বাসায় যাওয়ার জন্য একটি অটোরিকশায় ওঠেন খোরশেদুল আলম। পথে অটোরিকশা থামিয়ে আরও দু’জন ওঠেন। তারা খোরশেদুলকে জিম্মি করে হালিশহরে মুহুরীপাড়ায় একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর ছবি তোলেন। সেগুলো ফেসবুকে প্রচারের ভয় দেখিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন। খোরশেদুল এত টাকা দিতে পারবে না বললে দর কষাকষি করতে থাকেন তারা। একপর্যায়ে তিনি তার জামাতা মোরশেদুল আলমকে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে ৪৫ হাজার টাকা তাদের দেন।

কোতোয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোমিনুল হাসান বলেন, ‘টাকা পাঠানোর পর মোরশেদুলের সন্দেহ হয়, তার শ্বশুর কোনো বিপদে পড়েছেন। তখন তিনি কোতোয়ালী থানায় এসে বিষয়টি জানান। পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ, বিকাশ নম্বর ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামিদের শনাক্ত করে। রোববার রাত একটার দিকে হালিশহরের রঙ্গীপাড়া থেকে জাহেদ ও বেলালকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সোমবার ভোরে মুহুরীপাড়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে কাউছার ও ইমনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বাসা থেকে খোরশেদুল আলমকে উদ্ধার করা হয়। তবে মনোয়ার এবং ইয়াছমিন নামে ওই নারী পালিয়ে যায়।’

Leave a Comment