কুয়েতে বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতায় ১১৭ দেশকে পেছনে ফেলে তৃতীয় স্থান অর্জন করেন হাফেজ আবু রাহাত…

কুয়েত আমিরের তত্ত্বাবধানে ১১তম বিশ্ব কোরআন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেছেন বাংলাদেশের হাফেজ আবু রাহাত। তিন ক্যাটাগরিতে ১১৭টি দেশকে পেছনে ফেলে এই অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন তিনি।

বাংলাদেশ ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম আয়োজিত কুয়েতে আন্তর্জাতিক এই কোরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় প্রথম কেনিয়ার আব্দুর রহমান মুছা আব্দুল্লাহ, দ্বিতীয় ঘানার আব্দুস সামাদ আদাম, চতুর্থ আলজেরিয়ার মুহাম্মাদ আব্দুর রউফ এবং পঞ্চম হয়েছেন লিবিয়ার আব্দুর রাজ্জাক।

বাংলাদেশ থেকে প্রতিযোগিতার জন্য মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদ্রাসার দুজন শিক্ষার্থী দুটি গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিনিধি নির্বাচিত হয়। তারা হলেন, হাফেজ তাওহিদুল ইসলাম ও হাফেজ আবু রাহাত।

গত বুধবার (১২ অক্টোবর) কুয়েতের ধর্মমন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আশিকুজ্জামানসহ ১১৭ দেশের রাষ্ট্রদূত সেখানে উপস্থিত ছিলেন।আর মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) সকালে কুয়েতের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন হাফেজ তাওহিদুল ইসলাম ও হাফেজ আবু রাহাত। তাদের সঙ্গে ছিলেন মাদ্রাসার পরিচালক শায়েখ নেছার আহমাদ আন নাছিরী।

এদিকে আন্তর্জাতিক এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদের সংবর্ধনা দিয়েছে ইসলামি আন্দোলন কুয়েত শাখা। মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) কুয়েত সিটির রাজধানী হোটেলে সংগঠনের সভাপতি শায়খ আবদুল মমিনের সভাপতিত্বে এবং মোহাম্মদ গোলাম সরোয়ার সিরাজী ও আবদুল আজীজের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শায়খ আবদুল্লাহ আল হারুন।