ইমরানের ওপর হামলার কারণ জানালো হামলাকারী

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে হত্যাচেষ্টার কথা স্বীকার করে হামলার কারণ জানিয়েছে গ্রেপ্তার ব্যক্তি। পাকিস্তানের জিও নিউজ সন্দেহভাজন ওই হামলাকারীর একটি সাক্ষাৎকার নিয়েছে। যেখানে হামলাকারী অকপটে স্বীকার করেছেন, ইমরানকে হত্যা করাই তার উদ্দেশ্য ছিল।বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) ওয়াজিরাবাদের গুজরানওয়ালায় দলীয় সমর্থকদের সমাবেশে গুলিবিদ্ধ হন ইমরান খান। বর্তমানে তিনি লাহোরের শওকত খানুম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

হত্যার চেষ্টা ও হামলার স্বীকারোক্তিমূলক বক্তব্যে সন্দেহভাজন ব্যক্তি বলেছে, ইমরান জনগণকে বিভ্রান্ত করছিলেন। আমি এটি মেনে নিতে পারছিলাম না। তাই আমি তাকে হত্যার চেষ্টা করি।ওই ব্যক্তি আরও বলে, সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি তাকে হত্যা করার। আমি শুধু ইমরান খানকে হত্যা করতে চেয়েছিলাম, অন্য কাউকে নয়।

বক্তব্যে সন্দেহভাজন জানায়, ইমরান খান লাহোর ছেড়ে যাওয়ার পর হত্যা চেষ্টার পরিকল্পনা করে আসছে সে। সে একটি মোটরসাইকেলে করে গুজরানওয়ালা এসেছে এবং সেটি তার মামার দোকানের সামনে রেখে এসেছে।হামলায় তার কোনও সঙ্গী রয়েছে কিনা জানতে চাইলে সে জানায়, আমার সঙ্গে আর কেউ নেই। আমি একা।

পাকিস্তানে নতুন করে নির্বাচনের ‍দাবিতে গত শুক্রবার লাহোর থেকে রাজধানী ইসলামাবাদ অভিমুখে বিক্ষোভযাত্রা লংমার্চ শুরু করেন ইমরান খান। পথে পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে গুলিবিদ্ধ হন তিনি।

ইমরানসহ চারজন গুলিবিদ্ধ হওয়ার কথা জানিয়েছেন পিটিআই নেতারা। হামলার সময়ের একটি ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে দেখা গেছে, ইমরানের একজন সমর্থক হাতে অস্ত্র ধরে থাকা হামলাকারীকে পেছন থেকে ধরে ফেলেছেন। পরে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Leave a Comment