আমি তো মাত্র দুজনকে বিয়ে করেছি: শাকিব খান

গত শুক্রবার সকালে শাকিব খান ও বুবলীর আড়াই বছর বয়সী সন্তান শেহজাদ খানের খবর প্রথম প্রকাশ্যে আসে। এরপর থেকেই তাদের ঘিরে আলোচনা ছিল তুঙ্গে। অপু বিশ্বাসের পর বুবলীর সঙ্গেও একই ঘটনার পুনরাবৃতি ঘটায় শাকিব অনলাইন-অফলাইন সব মাধ্যমেই ছি ছি শুনতে হচ্ছে ঢাকাই ছবির শীর্ষ এই নায়ককে।

এ ঘটনার পর বুবলীর সঙ্গে শুটিংও করেছেন শাকিব খান। তবে গণমাধ্যমের কাছে একেবারেই চুপ ছিলেন । কোনো মন্তব্যই করেননি। বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমের কাছে মুখ খুলেছেন শাকিব। জানিয়েছেন তিনি কোনো স্ক্যান্ডাল করেননি। বিয়ে করেছেন।

শাকিব খান বলেন, ‘আমি কমপক্ষে শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছি। তাই বলে আমি কি প্রত্যেক নায়িকার সঙ্গেই প্রেম-বিয়ের সম্পর্কে জড়িয়েছি। সবার সঙ্গে কি আমার স্ক্যান্ডাল আছে। আমি তো মাত্র দুজনকে বিয়ে করেছি।’প্রশ্ন রেখে শাকিব বলেন, বাকি যেসব খবর রটেছে সবই তো গুঞ্জন। না হলে যাদের জড়িয়ে আমার সম্পর্কে বলা হচ্ছে তারা কি মুখ বন্ধ করে রাখত?

তারকাদের প্রাইভেসি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে শাকিব খান বলেন, আমিও স্বীকার করি সেলিব্রেটিদের সবকিছুই পাবলিক দেখতে চায়, তাই বলে কি একজন সেলিব্রেটির বেডরুমের দৃশ্য পাবলিককে দেখানো যায়, তার প্রাইভেসি বলে কী কিছু থাকতে নেই। দেখুন হলিউড-বলিউড এমনকি টলিউডের তারকাদের কথাই যদি বলি তাহলে বলতে হয় সেখানে তো এমন ঘটনা প্রায়ই ঘটে, কিন্তু সেগুলো নিয়ে কি সে দেশের মানুষের মধ্যে এমন উন্মাদনা কখনো দেখা যায়।

উদাহরণ দিয়ে ঢালিউডের এই শোর্ষ নায়ক বলেন, টালিগঞ্জের জনপ্রিয় নায়ক প্রসেনজিৎ চারটি বিয়ে করেছেন, হলিউডের ইলেন মাস্কও চারটি বিয়ে করেছেন, কই তাদের নিয়ে তো সেসব দেশের মানুষের মধ্যে তেমন টুঁ শব্দ নেই। আসলে প্রতিষ্ঠিত মানুষের পেছনে সব সময় ঈর্ষাপরায়ণ কিছু শত্রু থাকে, তারাই তিলকে তাল করে পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে চায়।

মীরজাফরদের পরিণতি শেষ পর্যন্ত খারাপই হয় বলে মন্তব্য করে বললেন, এসব মানুষ কিন্তু বন্ধু রূপে কাছেই থাকে। যেমন নবাব সিরাজউদ্দৌলার অতি কাছের মানুষ ছিলেন মীরজাফর। এই মিরজাফরদের কাছ থেকে সব সময় দূরে থাকতে হয়। মিরজাফরদের পরিণতি শেষ পর্যন্ত ভয়াবহ হয়। তারা একসময় করুণভাবে নির্বংশ হয়। ইতিহাসই এর সাক্ষী। আমি আর কোনো খারাপ মানুষের সঙ্গে চলতে চাই না।

বুবলীর সঙ্গেই তো বাকিটা জীবন কাটিয়ে দেবেন ? এমন প্রশ্নের জবাবে ঢাকাই ছবির কিং খান বলেন, এমন দেখুন, বিচ্ছেদের জন্য কেউ বিয়ে করে না, সুন্দর সংসার আর সুখের আশায় মানুষ বিয়ে করে। কোনো একজনের কারণে কেউ সুখী হয় কেউ বা হয় না। আমি এখন সুন্দর একটি সুখের সংসার চাই।